কিউইদের লাকি গ্রাউন্ডে শ্রীলঙ্কার চ্যালেঞ্জভ|113172|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
কিউইদের লাকি গ্রাউন্ডে শ্রীলঙ্কার চ্যালেঞ্জভ
ক্রীড়া ডেস্ক

কিউইদের লাকি গ্রাউন্ডে শ্রীলঙ্কার চ্যালেঞ্জভ

ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলে ওভালকে বলা হয় নিউজিল্যান্ডের লাকি গ্রাউন্ড। টেস্টে এই মাঠে দারুই সাফল্য কিউইদের। ২০১৪-তে অভিষেক হওয়া ক্রাইস্টচার্চে এখন পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচের তিনটিতে জিতেছে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। সর্বশেষ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টটি ড্র হয়েছে আর হার শুধু অস্ট্রেলিয়ার কাছে। এই মাঠে কিউইদের তিন জয়ের সবকটি এশিয়ার দলের বিপক্ষে (বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা)। চলমান সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ ভোরে (বাংলাদেশ সময় ৪টা) ক্রাইস্টচার্চে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হয়েছে লঙ্কানরা। প্রথম টেস্টে ব্যাটিং বীরত্ব দিয়ে ড্র ছিনিয়ে এনেছিল সফরকারীরা। সঙ্গে বৃষ্টির সহায়তাও ছিল। কোনো সন্দেহ নেই দলটির আত্মবিশ্বাস এখন তুঙ্গে। তবু কিউইদের প্রিয় মাঠে তাদের হারানোর চ্যালেঞ্জ জিততে পারবে তো শ্রীলঙ্কা!

ক্রাইস্টচার্চের অভিষেক হয় ২০১৪ বক্সিং ডে’তেই। টেস্টে নিউজিল্যান্ডের প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা। চার বছর পর আবার একই মাঠে একই প্রতিদ্বন্দ্বী। সেবার ৮ উইকেটে হেরে সিরিজে পিছিয়ে পড়ে সফরকারী দল। গতবারের মতো এবারও ক্রাইস্টচার্চের সবুজ পিচ শ্রীলঙ্কার বড় চ্যালেঞ্জ। টেস্টের সাধারণ নিয়ম মেনে সময়ের সঙ্গে এই উইকেট সেøা হয় না। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত প্রথম দিনের মতোই পেস বোলিংসহায়ক থাকে। ওয়েলিংটনে পিচ একটু সহজ হয় চতুর্থ দিনে। সেই সুযোগে নিজেদের ব্যাটিং সামর্থ্য দেখান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও কুশল মেন্ডিস। চলতি টেস্ট সিরিজে ভালো কিছু পেতে হলে ক্রাইস্টচার্চেও সেই লড়াই দেখাতে হবে লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের। নয়তো ড্র থাকা সিরিজটি ১-০-তে জিতে ৮৮ বছরে প্রথমবার টানা চার টেস্ট সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব গড়বে নিউজিল্যান্ড।