মোবাইলের ফাইল ট্রান্সফার করুন খুব সহজে|113435|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৮:৪৬
মোবাইলের ফাইল ট্রান্সফার করুন খুব সহজে
অনলাইন ডেস্ক

মোবাইলের ফাইল ট্রান্সফার করুন খুব সহজে

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আসে নতুন নতুন প্রযুক্তি, নতুন নতুন মোবাইল। আমারা সবাই কমবেশি কয়েকবার নিশ্চয়ই মোবাইল বদলাই। এক মডেল বদলে অন্য মডেল নিই। অ্যান্ড্রয়েড বদলে নিই আইফোন। আমাদের যাবতীয় তথ্য, ছবি, যোগাযোগের জন্য ফোন নাম্বার, ঠিকানা এখন সব কিছুই থাকে মোবাইলের মধ্যেই।

মোবাইল বদলের ক্ষেত্রে ফাইল ট্রান্সফারের বিষয়টি খুব ঝামেলায় ফেলে। বদল করলেই হারিয়ে যায় মোবাইলের সব কিছু। তবে আশার কথা হলো মোবাইলে থাকা প্রয়োজনীয় সব কিছু ট্রান্সফার করার জন্য ব্যবস্থা রয়েছে। খুব সহজেই আপনি এসব করতে পারবেন।

 ‘ক্লাউড’ নামে নতুন একটি সেবা চালু আছে এখন। ক্লাউডে তথ্য রাখলে তথ্য চুরি, হার্ড ড্রাইভ অচল হয়ে যাওয়া বা প্রাকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে রক্ষা পায়। যে কোনো স্থান থেকে লগইন করে এটি ব্যবহার করা যাবে। ফাইল ট্রান্সফার করার সময় এই ক্লাউড সার্ভিস আপনার ফাইলের ব্যাকআপ রাখবে। আপনি যদি গুগলের বিভিন্ন সার্ভিস নিয়মিত ব্যবহার করেন তবে এটা আপনার জন্য সব থেকে ভালো হবে।

আপনি যদি আইফোন থেকে অ্যান্ড্রয়েডে ট্রান্সফার করতে চান তবে তার ব্যবস্থাও আছে। আইফোনে গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে গুগল ড্রাইভ ডাউনলোড করুন। গুগলে অ্যাকাউন্ট থাকলে সাইন ইন করুন। না থাকলে নতুন অ্যাকাউন্ট করে নিন। এরপর ড্রাইভে ব্যাকআপ রাখুন। এরপর অ্যান্ড্রয়েডে একই অ্যাকাউন্ট দিয়ে সাইন ইন করুন। সব পেয়ে যাবেন।

আর যদি অ্যান্ড্রয়েড থেকে আইফোনে ট্রান্সফার করতে চান, গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ‘গড়াব ঃড় রঙ’ অ্যাপ ডাউনলোড করুন। এরপর কী করতে হবে ধাপে ধাপে সেটার নির্দেশনা সেখানেই দেওয়া আছে।

প্রতিটি অ্যাপ ডাউনলোড করে চালু করার আগে সাইন ইন করতে হয়। এই সাইন ইন করারও একটা নিরাপদ ও সহজ ব্যবস্থা রয়েছে। কারণ বারেবারে বিভিন্ন জায়গায় সাইন ইন করলে আপনার পাসওয়ার্ড চুরি হতে পারে। নিরাপত্তার ঝুঁকি থেকে যায়। তাই আপনি ব্যবহার করতে পারেন পাসওয়ার্ড ম্যানেজার ‘লাস্টপাস’। এই লাস্টপাস আপনার পাসওয়ার্ডের একটি ইনক্রিপটেড কপি ক্লাউডে সংরক্ষিত রাখে। তাছাড়া অধিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য তাদের রয়েছে ‘টু ফ্যাক্টর ভেরিফেকেশন’ সিস্টেম।

কিছু বিষয় মাথায় রাখলে ফাইল ট্রান্সফার করা খুব সহজ হয়ে যায়। যেমন, যখন ছবি তুলবেন সেটা যেন ক্লাউডের গুগল ফটোতে সেভ হয়। গুগল ফটোর অ্যাপ প্রায় সব অ্যান্ড্রয়েড ফোনেই থাকে। নতুন ফোনে শুধু অ্যাপ ডাউনলোড করে সাইন ইন করলেই কাজ শেষ।