অ্যান্টার্কটিকায় নিঃসঙ্গ অভিযাত্রীর অভিযান|113539|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
অ্যান্টার্কটিকায় নিঃসঙ্গ অভিযাত্রীর অভিযান
রূপান্তর ডেস্ক

অ্যান্টার্কটিকায় নিঃসঙ্গ অভিযাত্রীর অভিযান

কোনো সাহায্য ছাড়া প্রথম ব্যক্তি হিসেবে পুরো অ্যান্টার্কটিকা ভ্রমণ করেছেন ৩৩ বছর বয়সী মার্কিন এক অভিযাত্রী। কলিন ও’ব্র্যাডি নামের ওই যুবক স্কিংয়ের মাধ্যমে বরফে আচ্ছাদিত মহাদেশের ১ হাজার ৫০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়েছেন ৫৪ দিনে। হাড় কাঁপানো শীতে উত্তর থেকে দক্ষিণের এ নিঃসঙ্গ যাত্রায় তার সঙ্গী ছিল বরফে মাল টানার বাহন (স্লেজ)।

দুঃসাহসিক অভিযানের শেষপর্যায়ে ৩২ ঘণ্টায় ১২৪ কিলোমিটার পাড়ি দেন ও’ব্র্যাডি। যাত্রা সমাপ্তির পর গত বুধবার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে তিনি বলেন, ‘আমি লক্ষ্যে পৌঁছেছি : কোনো সাহায্য ছাড়া অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশের এক কূল থেকে অন্য কূলে যাওয়া ইতিহাসের প্রথম ব্যক্তি হয়েছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘শেষ ৩২ ঘণ্টা জীবনের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং মুহূর্তগুলোর কিছু হলেও সত্যি বলতে এ সময়গুলো আমার জীবনের অন্যতম সেরা মুহূর্ত।’ ও’ব্র্যাডির পুরো যাত্রা গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেমের (জিপিএস) মাধ্যমে ট্র্যাক করা হয়েছে। আর নিজের রোজকার যাত্রার বিষয়ে ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটে সরাসরি আপডেট দিয়েছেন তিনি। স্ত্রী জেনা বেসো বলেন, তিনি ও তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন রাত জেগে ও’ব্র্যাডির যাত্রার খোঁজ রেখেছেন। তারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন কখন প্রিয়জন বলবে, ‘আমি (যাত্রা) শেষ করেছি।’ অ্যান্টার্কটিকার ইউনিয়ন গ্ল্যাসিয়ার থেকে গত ৩ নভেম্বর ইংল্যান্ডের সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন লুইস রুডের সঙ্গে যাত্রা শুরু করেছিলেন ও’ব্র্যাডি। তাদের সামনে ছিল বরফের চাদরে ঢাকা বিস্তীর্ণ অঞ্চল। কোনো বস্তু বা ব্যক্তির সাহায্য ছাড়া প্রথমবার সেটা পাড়ি দিয়ে ইতিহাসে জায়গা করে নেন মার্কিন যুবক।