অধিকার আদায়ে পাশে থাকলে ভোট|113548|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
হিলিবন্দরের শ্রমিকরা
অধিকার আদায়ে পাশে থাকলে ভোট
হাকিমপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

অধিকার আদায়ে পাশে থাকলে ভোট

দিনাজপুর-৬ আসনে প্রার্থীরা প্রচার শেষে ছক কষছেন ভোটের হিসাব। ভোটারদের মন জয় করতে তারা দিয়েছেন নানা প্রতিশ্রুতি। তবে ভোটারদের হিসাব একটু ভিন্ন। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দরে কর্মরত শ্রমিকরা বলছেন, তাদের অধিকার আদায়ে যে প্রার্থী অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন, তাকেই তারা ভোট দেবেন। এই বন্দরে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের অন্তর্ভুক্ত হয়ে প্রায় আড়াই থেকে তিন হাজার শ্রমিক জীবিকা নির্বাহ করেন।

গতকাল প্রচারে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। দিনাজপুরের হাকিমপুর, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ ও ঘোড়াঘাটÑ এই চার উপজেলা নিয়ে গঠিত দিনাজপুর-৬ আসন। এ আসন থেকে আওয়ামী লীগ ও মহাজোট মনোনীত প্রার্থী শিবলী সাদিক। প্রচারের সময় তিনি পথসভা, উঠান বৈঠক করে নৌকায় ভোট চেয়েছেন। ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী জামায়াত নেতা আনওয়ারুল ইসলাম। তাকে তেমন প্রচারে দেখা যায়নি। ইসলামী আন্দোলনের ডা. নূর আলম ছিদ্দিক ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির শাহিদা খাতুন তারা নিয়মিত হিলিসহ প্রচার চালিয়েছেন।

বন্দর ও বন্দরের বাইরে কর্মরত শেরেগুল ইসলাম ও সাইদুল ইসলামসহ অন্য শ্রমিকরা বললেন, বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা ভোট নিতে নানা ধরনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু ভোট চলে গেলে শ্রমিকদের কথা আর কেউ মনে রাখে না। হিলি স্থলবন্দরসহ বন্দরের আশপাশে বিভিন্ন আমদানিকারকদের গুদামে আমরা আড়াই থেকে তিন হাজারের মতো শ্রমিক রয়েছি। শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরি পেতে যে প্রার্থী ভূমিকা রাখবে, তাকে ভোট দেব।’ এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শিবলী সাদিক বলেন, ‘হিলি স্থলবন্দরকে কেন্দ্র করে একটা মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে। বন্দরের যেসব রাস্তাঘাট রয়েছে, সেগুলো পণ্যবাহী যান চলাচলের উপযোগী করা হবে।