বছরের শেষ নাটক ‘আলোর অপেরা’|113858|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৬:০৯
বছরের শেষ নাটক ‘আলোর অপেরা’
নিজস্ব প্রতিবেদক

বছরের শেষ নাটক ‘আলোর অপেরা’

নাট্যদলগুলোর নানা সংকট নিয়ে ‘আলোর অপেরা’ রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন অপু শহীদ। এথিক প্রযোজনাটি বছরের শেষ নাটক হিসেবে শুক্রবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে প্রদর্শিত হয়। এ দিন ছিল উদ্বোধনী মঞ্চায়ন।

নাটকটির উদ্বোধন ঘোষণা করেন রামেন্দু মজুমদার। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। সঞ্চালনা করেন নাট্যকার রেজানুর রহমান।

‘আলোর অপেরা’য় দেখা যায়- মহড়া কক্ষের অভাব, হল পাওয়া নিয়ে জটিলতা, অভিনেত্রীর সংকটসহ নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে একটি দল ‘সাগর সুন্দরী’র শো চালিয়ে যায়। পাশাপাশি শুরু করে নতুন নাটক ‘চাঁদ বণিকের পালা’র মহড়া। এরপর ঘটে নানা নাটকীয়তা।

নাট্যতত্ত্বে স্নাতক করা অর্কিড চায় নাটকের প্রথাগত প্যাটার্ন পরিবর্তন করতে কিন্তু দলে এসে দেখে থিয়েটার মানে শুধু তত্ত্ব নয় প্রয়োগে রয়েছে নানা জটিলতা। ব্যর্থ হয়ে ফিরে যায় সে। অন্যদিকে রূপসা নামের মেধাবী এক মেয়ে অভিনেত্রী হতে চায় কিন্তু সে হয়ে উঠে ভিন্ন কিছু।

এ ধরনের নানা সংকটের কারণে দলটি নাটক মঞ্চায়ন করতে ব্যর্থ হয়। ফলে দলের সকলে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। প্রতিবাদ করে। কিন্তু দলপ্রধান আবার সেই পুরোনো নাটক মঞ্চায়নের আয়োজন করে। ‘সাগর সুন্দরী’ নাটকে অভিনয় করতে করতে শিল্পীরা ঢুকে পড়ে ‘চাঁদ বণিকের পালা’য়।

মঞ্চের ওপর দাঁড়িয়ে অভিনেতা হয়ে উঠে সর্বেসর্বা। তখন নাট্যকার আর নির্দেশকের কিছুই করার থাকে না।

‘আলোর অপেরা’র বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিন্টু সরদার, মনি কাঞ্চন, ইমতিয়াজ আসাদ, দেলোয়ার হোসেন সোহাগ, রাতুল মীর, এনামুল মীর, হাসান আরা ডালিয়া, রবিউল হাসান রুবেল, সুকর্ণ হাসান, উম্মে হাবীবা, সাবা নূর প্রমুখ।