‘সেলিব্রিটি শো নয়, মানুষের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছি’|113891|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২১:২৬
‘সেলিব্রিটি শো নয়, মানুষের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছি’
নিজস্ব প্রতিবেদক

‘সেলিব্রিটি শো নয়, মানুষের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছি’

ময়মনসিংহের গৌরীপুর এলাকার আওয়ামী লীগের প্রার্থীর হয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন জ্যোতি...

জ্যোতিকা জ্যোতি। ছোটপর্দা ও বড়পর্দা দুই জায়গাতেই তিনি সমান জনপ্রিয়। বেশ কিছুদিন ধরে এই তারকা ব্যস্ত  রয়েছেন নির্বাচনী প্রচারণা নিয়ে। আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন তিনি।

এদিকে গত ১৪ ডিসেম্বর থেকে এই অভিনেত্রী অবস্থান করছেন নিজ এলাকা ময়মনসিংহের গৌরীপুরে। সেই এলাকার আওয়ামী লীগের প্রার্থীর হয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। দেশ রূপান্তরকে জ্যোতি বলেন, ‘গত ১৫ দিন ধরেই আমি আমার নিজ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছি। মাঝে ১৯ ও ২০ তারিখে চট্টগ্রাম গিয়েছিলাম, সেটাও ওই এলাকার লীগের প্রার্থীদের প্রচারণার জন্য। আমি আমার নিজ এলাকাতেই বেশি ক্যাম্পেইন করছি। কারণ আমার মনে হয়েছে আমার এলাকার নির্বাচনী প্রচারণা অনেক নাজুক ছিল। পরে আমি বড় একটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করি। যেখানে ঢাকা থেকে আমার সহকর্মীরাও আমার সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন। সাইমন সাদিকসহ আরও অনেকেই এসেছিলেন সেদিন। সেই অনুষ্ঠানের পর এ এলাকায় লীগের প্রার্থীর পক্ষে একটা চাঞ্চল্য দেখতে পাচ্ছি। আমার এলাকার বিভিন্ন পথসভাসহ সারা এলাকায় প্রচারণা চালাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি চাই আবারও আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করুক। অন্তত আমি চাই না আমার এলাকায় নৌকার বাইরে কেউ বিজয়ী হোক।’

এদিকে ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসন থেকে জ্যোতি নিজেও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন কিন্তু তিনি পাননি। জ্যোতির বদলে সেই আসনে মনোনয়ন পান বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ। মনোনয়ন না পাওয়ায় কোনো মনোবেদনা কাজ করে কিনা, জানতে চাইলে জ্যোতি বলেন, ‘না। কোনো কষ্ট কাজ করে না। জননেত্রী শেখ হাসিনা যা ভালো মনে করেছে তাই করেছেন। আমি দলের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে নেত্রীর নির্দেশ মেনে দলের হয়ে কাজ করছি। এটাই আমার বড় প্রাপ্তি।’

এদিকে নির্বাচনী প্রচারণার নানা ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে জ্যোতি লিখেছেন, ‘সেলিব্রেটি শো নয়, আমি চেষ্টা করেছি মানুষের কাছে যাওয়ার, মাঠে, ঘাটে, প্রান্তরে, দিনে, রাতে... নৌকার বিজয়ের লক্ষ্যে!’

ফেসবুকের এই মন্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জ্যোতি বলেন, ‘লোক দেখানো প্রচারণা বা সেলিব্রেটি শো’তে আমি বিশ্বাসী না। আমি চেষ্টা করেছি আমার এলাকার প্রতিটি মানুষের কাছে যাওয়ার। চেষ্টা করেছি প্রান্তিক মানুষের কাছে গিয়ে তাদেরকে নৌকার পক্ষে উদ্দীপিত করার। যাতে তারা আওয়ামী লীগকে ভালোবেসে নৌকায় ভোট দেন।’

এসব প্রচারণার ভেতর দিয়ে নিজেকে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করে নিচ্ছেন কিনা জানতে চাইলে জ্যোতি বলেন, ‘না। সেসব কিছু না। একজন সাধারণ কর্মী হিসেবেই দলের জন্য কাজ করছি। এটাও ঠিক ভবিষ্যতেও আওয়ামী লীগের হয়েই কাজ করব। ফলে নিজের মানুষদের জানা বোঝার একটা ব্যাপার তো থাকেই।’

জ্যোতি জানালেন নির্বাচন শেষেই আবারও ফিরবেন কাজে। তিনি বলেন, ‘বেশ কিছু কাজ হাতে রয়েছে। নির্বাচনের পরপরই ঢাকায় এসে কাজগুলো শুরু করব।’