উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় শুরু ভোটগ্রহণ|114016|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৮:২৬
উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় শুরু ভোটগ্রহণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় শুরু ভোটগ্রহণ

ঝিনাইদহের একটি ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। ছবি: দেশ রূপান্তর

উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যেই দেশে বহুল আলোচিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। রোববার ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে টানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

একটি আসনের একজন প্রার্থী মারা যাওয়ায় এবার ৩০০টি সংসদীয় আসনের মধ্যে ২৯৯টি আসনে ভোট হচ্ছে। সাড়ে ১০ কোটি ভোটার ভোট দিয়ে এসব আসনে তাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন।

এসব আসনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীক নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও তাদের নেতৃত্বাধীন মহাজোট এবং ধানের শীষ নিয়ে সরকারবিরোধী বিএনপি ও তাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই প্রথম রাজনৈতিক সরকারের অধীনে দেশের সব রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে। তবে এবারের মতো আর কখনোই দেশের কোনো নির্বাচনে সরকারবিরোধী প্রার্থীদের প্রচারের মাঠে এত অনুপস্থিতি দেখা যায়নি। ৬৪ জেলার মধ্যে ৫৫ জেলাতেই হামলা, বাধা ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। ৩০০ আসনের মধ্যে ১৫৯টিতেই ছিল সংঘাত।

সংসদ নির্বাচনের ইতিহাসে এবারই প্রথম ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট হচ্ছে। আসনগুলো হলো ঢাকা-৫, ঢাকা-১৩, চট্টগ্রাম-৯, রংপুর-৩, খুলনা-২ ও সাতক্ষীরা-২। এসব আসনে মোট কেন্দ্র ৮৪৫টি। ভোটার ২১ লাখ ২৪ হাজার ৪১১ জন।

লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিয়ে নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে এবারের মতো প্রকাশ্য মতবিরোধ কখনোই দেখেনি জাতি। ভোটের মাঠে সবাই সমান সুযোগ পাচ্ছে বলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বারবার দাবি করলেও পাঁচ সদস্যের ইসিতে ভিন্নমত পোষণ করেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

নির্বাচন ঘিরে আগের দিন থেকেই মোবাইল ইন্টারনেটে ফোরজি ও থ্রিজি সেবা ৩৩ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। বিটিআরসি জানিয়েছে, ভোটের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত এসব সেবা পাওয়া যাবে না।

তবে ভোটকে ঘিরে আন্তর্জাতিক মহলের উদ্বেগ অব্যাহত আছে। ‘নিয়ন্ত্রণমূলক নির্বাচনী পরিবেশ’ নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে নির্বাচন ও মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা ১৫টি আন্তর্জাতিক সংগঠন।

ভোটগ্রহণ উপলক্ষে আজ সাধারণ ছুটি। ব্যাংকও বন্ধ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ ৩০ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত। যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কমিশনের অনুমোদিত পরিচয়পত্রধারীর বাইরে কোনো যান চলাচল করবে না।

এবার ভোটে লড়ছেন ১৮৬১ জন প্রার্থী। তাদের মধ্যে ১ হাজার ৭৩৩ জন দেশের ৩৯টি রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থী; বাকি ১২৮ জন স্বতন্ত্র। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও তাদের শরিক ১৬টি দল এবার নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। এ ছাড়া তাদের জোটসঙ্গী জাতীয় পার্টি নিজেদের লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে লড়ছেন।

বিএনপিসহ তাদের জোট শরিক আটটি দল ধানের শীষে ভোট করছে এবার। নিবন্ধিত দলের বাইরে জামায়াত ও নাগরিক ঐক্যের প্রার্থীরা ধানের শীষ প্রতীকে লড়ছেন।