নিউজিল্যান্ডের রেকর্ড ১৪ বলেই|114161|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
নিউজিল্যান্ডের রেকর্ড ১৪ বলেই
ক্রীড়া ডেস্ক

নিউজিল্যান্ডের রেকর্ড ১৪ বলেই

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে শ্রীলঙ্কাকে ৬৬০ রানের টার্গেট দিয়েই জয়ের অপেক্ষায় ছিল নিউজিল্যান্ড। চতুর্থ দিন অপেক্ষা বেড়েছিল তাদের। কিন্তু শেষ দিনে সফরকারীদের আর সময়ক্ষেপণ করতে দেননি স্বাগতিক বোলাররা। দিনের শুরুতে ১২ মিনিটের মধ্যে মাত্র ১৪ বলেই প্রতিপক্ষকে গুটিয়ে দিয়ে ৪২৩ রানের বিশাল জয় নিশ্চিত করে কিউইরা। ৬ উইকেটে ২৩১ রানে শুরু করে ২৩৬-এ অলআউট লঙ্কানরা। নিউজিল্যান্ড ১-০-তে সিরিজ নিশ্চিত করে। সুবাদে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার টানা চার টেস্ট সিরিজ জয়ের গৌরব অর্জন করল ব্ল্যাক ক্যাপসরা। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানকে হারিয়েছে তারা। এছাড়া এই সিরিজ জয়ে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে তিন নম্বরে উঠেছে দলটি।

এই ম্যাচের ফল দুই দলের জন্য গৌরব ও লজ্জার ইতিহাস এনে দিয়েছে। নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ইনিংস ব্যবধান ছাড়া তাদের সবচেয়ে বড় জয়। আর শ্রীলঙ্কা ইনিংস ব্যবধান ছাড়া তাদের সবচেয়ে বড় হার হজম করে। এতদিন কিউইদের সবচেয়ে বড় জয়টি ছিল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে (ইনিংস ব্যবধান বাদে)। ২০১৬ সালে ২৫৪ রানে জিতেছিল তারা। আর শ্রীলঙ্কা দুই ইনিংস ব্যাট করেও সবচেয়ে বড় হার দেখেছিল গত বছর ভারতের বিপক্ষে ৩০৪ রানে।

আগের দিন সাহসী প্রতিরোধ গড়েছিল সফরকারীরা। কিন্তু পঞ্চম দিন দাঁড়াতেই পারেনি তাদের ব্যাটসম্যানরা। রিটায়ার্ড হার্ট হওয়া অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের ব্যাট করতে নামার কথা ছিল, কিন্তু পারেননি। তাই জয়ের জন্য ৩ উইকেটের প্রয়োজন ছিল নিউজিল্যান্ডের। মাত্র তিন ওভারের মাথায় ট্রেন্ট বোল্ট ও নিল ওয়াগনার সেই প্রয়োজনীয়তা মিটিয়ে দেন। ২ উইকেট নেন বোল্ট। সুরঙ্গা লাকমলকে দিনের তৃতীয় বলে ও পরের ওভারের প্রথম বলে তুলে নেন দুশমন্থ চামিরাকে। এ ইনিংসে ৩ এবং প্রথম ইনিংসে ৬- ম্যাচে মোট ৯ উইকেট হলো এ পেসারের। বোল্টের ২ উইকেটের মাঝে ওয়াগনার দিলরুয়ান পেরেরাকে আউট করে নিজের ৪ শিকার পূর্ণ করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস : ১৭৮ ও ২য় ইনিংস : ৫৮৫/৪ডি.। শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস : ১০৪ ও ২য় ইনিংস : ২৩৬ (চান্দিমাল ৫৬, মেন্ডিস ৬৭, পেরেরা ২২, লাকমল ১৮; ওয়াগনার ৪/৪৮, বোল্ট ৩/৭৭, সাউদি ২/৬১)।

ফল : নিউজিল্যান্ড ৪২৩ রানে জয়ী। সিরিজ : নিউজিল্যান্ড ১-০ ব্যবধানে জয়ী।