নতুন বছরে তারকাদের পরিকল্পনা|114345|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০
নতুন বছরে তারকাদের পরিকল্পনা
মাসিদ রণ

নতুন বছরে তারকাদের পরিকল্পনা

নতুন বছরের প্রথম দিন আজ। ফেলে আসা বছরের দুঃখ-বেদনা ভুলে নতুন প্রত্যাশা নিয়ে পথচলার শুরু আশাবাদী মানুষের। কিছু ভুলত্রুটি শুধরে নিয়ে নতুন লক্ষ্য সামনে নিয়ে এগোনোর পালা। শোবিজ অঙ্গনের তারকারাও নতুন বছরে নতুন নতুন লক্ষ্য নিয়ে ছুটবেন বছরব্যাপী। বিভিন্ন অঙ্গনের কয়েকজন তারকার নতুন বছরের পরিকল্পনা নিয়ে এই আয়োজন সাজিয়েছেন মাসিদ রণ

 

গান নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে

তাহসান রহমান খান

গত বছর ব্যস্ত ছিলাম গান আর অভিনয় নিয়ে। এ বছরও তাই থাকবে। তবে এবার গান নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে। আমি চাই ধীরে ধীরে হলেও যেন বাংলাদেশের গান বিদেশে সমাদৃত হয়। এ জন্য আমাদের গানকে আন্তর্জাতিক মানের গানের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে হবে। আর সেই প্রতিযোগিতায় জিততে গেলে অবশ্যই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভালো পরিচালকের সঙ্গে কাজ করা জরুরি। তাই নতুন বছর থেকেই আমি সেই লক্ষ্য পূরণে মনোযোগী হব। এর মধ্যে ‘মায়াবী আলোতে’ শিরোনামের একটি গানের মিউজিক ভিডিও করেছি নিউইয়র্কে। ওখানকার একজন পরিচালক ভিডিওটি তৈরি করেছেন। গল্পের প্রয়োজনেই আমার সঙ্গে সাতজন বিদেশি মডেল ছিলেন।

এ ছাড়া এ বছরই আমার প্রথম চলচ্চিত্র ‘যদি একদিন’ মুক্তি পাবে। এর জন্য সময় ও শ্রম দিতে হয়েছে প্রচুর। এ জন্য টিভি নাটকে কাজ কমিয়ে দিয়েছি। ছবি মুক্তির পর আবার টিভিতে নিয়মিত অভিনয় করব। কিছু ওয়েব কনটেন্টেও অভিনয় করব।

সারা জীবন যেন এভাবে কাটে

দিলশাদ নাহার কণা

আমি আসলে নির্দিষ্ট কিছু লক্ষ্য ঠিক করে কাজ করি না। ধরেন, কেউ যখন মনে করবে আমি এ বছরে এই তিনটি কাজ করতে চাই। তখন সে শুধু ওই তিনটি কাজের পেছনেই ছুটবে। হয়তো এর মধ্যে সে দুটি কাজ করে ফেলতে পারবে। যে কাজটি করতে পারেনি তার জন্য মনের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হবে। কিন্তু এ কাজ করতে গিয়ে আশপাশের অনেক কিছুই সে অর্জন করলেও তার দিকে সে খেয়ালই দেবে না। এতে লাইফে শুধু কষ্ট বা হতাশাই বাড়ে। এ জন্য আমি শুধু ভালো কিছু গান করতে চাই। মন দিয়ে শুধু সেই কাজটিই করি। আর তা করতে গিয়ে এমনিতেই অনেক অর্জন চলে আসে, যা আমাকে অনেক আনন্দ দেয়। গত বছর খুবই ভালো কেটেছে আমার। আমি চাই এর চেয়ে ভালো না হোক, সারা জীবন যেন অন্তত এমনভাবে কাটাতে পারি। গত বছরের গানগুলোর মধ্যে বেশ কিছু গান দর্শক খুব ভালোভাবে নিয়েছে। তাই প্রত্যাশা আছে, যেকোনো একটি গানের জন্য পুরস্কার পাওয়ার। বাকিটা দর্শক বা বিচারকদের ওপর নির্ভর করছে।

সংসার আর পেশাজীবনে ব্যালেন্স চাই

সিয়াম আহমেদ

আমার জীবনে গত বছরের শেষ দিকে বিরাট একটি পরিবর্তন এসেছে। আমি এখন বিবাহিত। তাই বিবাহিত জীবন আর প্রফেশনাল জীবন সামলাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। তাই চাইব, এ বছর যেন আস্তে আস্তে এ বিষয়টি রপ্ত করতে পারি। আমি আশা করি, আমার প্রফেশনাল লাইফেও পরিবারের সহযোগিতা পাই। কারণ তারা দীর্ঘদিন ধরেই আমার ব্যস্ততা দেখে আসছেন আর আমাকে সাহায্যও করে আসছেন।

আর পেশাজীবন নিয়ে বলতে চাই গত বছর আমার দুটি ছবি পোড়ামন ২ ও দহন সফলতা পেয়েছে। তাই এ বছর আমার চ্যালেঞ্জটাও বেড়ে গেছে অনেকখানি। আমি আশা করব, সেই চ্যালেঞ্জেও আমি সফল হব। বর্তমানে নতুন ছবির জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছি। অচিরেই ভালো একটি ছবির খবর দেব সবাইকে।

শুধু অভিনয়েই মন দেব

পূজা চেরি

এ বছরের শুরুর দিকটা এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত থাকব। আশা করি ভালো ফল পেয়ে বাবা-মাকে খুশি করতে পারব। একটি মানসম্মত কলেজে ভর্তি হওয়ার ইচ্ছা আছে। আর পেশাজীবনে অবশ্যই চাইব গত বছরের চেয়ে ভালো ছবি দর্শকদের উপহার দিতে। এ বছর ‘প্রেম আমার ২’ ছবি দিয়ে আমার বড়পর্দার যাত্রা শুরু হবে। ‘প্রেম আমার’ ছবিটি কলকাতার ব্যবসাসফল পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ড্রিম প্রোজেক্ট ছিল। এর সিক্যুয়াল করেছি আমি আর আদৃত। এ ছবিটি রাজদা পরিচালনা না করলেও ছবির ৯০ ভাগ কাজের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন। তাই এটিও তার ড্রিম প্রোজেক্ট। আমি চাই তার স্বপ্নপূরণ করতে।

এর বাইরে এ বছর আর কটি ছবি করব জানি না। তবে গত বছর অনেকগুলো ছবির ব্যাপারে কথা হয়েছে। সবগুলো ছবি ভালোভাবে করতে পারলে নায়িকা হিসেবে নিজের নাম টপে দেখতে পারব বলে আমার বিশ্বাস। এ জন্য আমি শুধু অভিনয়ের দিকেই নজর দিচ্ছি। প্রেম-ভালোবাসা আপাতত একপাশে সরিয়ে রেখেছি।

ভিন্নধর্মী কিছু নাটক করব

সাবিলা নূর

আমি আসলে কোনো রেজুলেশনে বিশ্বাসী না। শুধু মানসম্মত কিছু নাটক করতে চাই। তবে নতুন বছরে চাইব নিজেকে আরো ভিন্নধর্মী কিছু নাটকে উপস্থাপন করতে। এমনিতেই আমি খুব বেশিসংখ্যক নাটক করি না লেখাপড়ার ব্যস্ততার কারণে।

এ বছর আরো বেছে বেছে কাজ করব। কারণ পড়াশোনায় আরো বেশি সময় দিতে হবে এবার। এর বাইরে তেমন কোনো পরিবর্তন আসবে বলে মনে হয় না কাজ বা ব্যক্তিজীবনে। বড়পর্দায় কাজের ব্যাপারে এখনই কিছু ভাবছি না, নিজেকে প্রস্তুত মনে হলে তারপর এ অঙ্গনে কাজ করব।

২০১৯ নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী

তানজিন তিশা

গত বছর আমার খুবই ভালো গেছে। আমার অভিনীত একাধিক নাটক দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে। আমার অভিনয়ও আলাদা করে প্রশংসিত হয়েছে। তাই দায়িত্ব বেড়ে গেছে অনেকখানি। ২০১৯ নিয়ে আমি অনেক বেশি আশাবাদী। বেছে বেছে ভালো গল্পের নাটকেই কাজ করব। অভিনয়ে নিজেকে আরো পরিণত করতে চাই। আর ব্যক্তিজীবনে নতুন বছর কোনো পরিবর্তন আসবে কি না জানি না। কারণ ব্যক্তিগত সম্পর্ক কখনো পরিকল্পনা করে হয় না। তা ছাড়া আমি সময়ের সঙ্গে চলতেই পছন্দ করি। বিশেষ করে ২০১৮ সালে আমার ব্যক্তিগত জীবনে অনেক বড় পরিবর্তন এসেছে। তাই নিজেকে পুরোনো সম্পর্ক, হতাশা, বেদনা থেকে বের করে এনে শুধুই কাজ করতে চাই। তা ছাড়া কাজ নিয়ে আমি এত বেশি ব্যস্ত যে, নতুন কোনো প্রেমের সম্পর্কে জড়ানোর সময় কোথায়?