কুমিল্লা ও রাজশাহীতে আরো ২ জনের মৃত্যু|114407|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০
নির্বাচনী সহিংসতা
কুমিল্লা ও রাজশাহীতে আরো ২ জনের মৃত্যু
নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ও রাজশাহী

কুমিল্লা ও রাজশাহীতে আরো ২ জনের মৃত্যু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন কুমিল্লার বরুড়ায় আড্ডা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে গুলিবিদ্ধ সাখাওয়াত হোসেন (২১) মারা গেছেন। গতকাল সোমবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তার মৃত্যু হয় বলে হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া জানান।

এদিকে ভোটের দিন রাজশাহীর গোদাগাড়ীর পালপুর উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে বিএনপি-জামায়াতের হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা ইসমাইল হোসেন মারা গেছেন। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে গোদাগাড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান।

নিহত ইসমাইল (৫০) উপজেলার কাজিহাটা গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে। তিনি আওয়ামী লীগ প্রার্থীর দেওপাড়া ইউনিয়ন  নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক ছিলেন।

কুমিল্লার ঘটনায় নিহত সাখাওয়াতের ভাই সাহাদত দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘নির্বাচনের আগের রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয় মসজিদের ইমাম আনোয়ার হোসেন মাইকে আমাদের নির্বাচন কেন্দ্রে (আড্ডা ডিগ্রি কলেজ) আগুন লেগেছে বলে ঘোষণা দেয়। এ সময় আগুন নেভাতে আমার ভাইসহ স্থানীয় অনেকেই কেন্দ্রে ছুটে যায়। অন্ধকারে কে বা কারা আমার ভাইকে গুলি করে। আমার ভাই কোনো রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল না, কৃষি কাজ করতেন।’

বরুড়া থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, নির্বাচনের আগের রাতে ভোটকেন্দ্র দখলে যায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় প্রিসাইডিং কর্মকর্তার গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি চালায়। তবে নিহত ব্যক্তি ওই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন কি না তা আমার জানা নেই।’

একই ঘটনায় আহত নুরুজ্জামান ও দিদারুল (১৭) হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে।

ভোট ঘিরে সহিংসতায় গত রবিবার কুমিল্লায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলে কুমিল্লায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে তিনজন হলো।

গোদাগাড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর জানান, ভোটের দিন রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীরা ওই ভোটকেন্দ্রে হামলা চালালে ইসমাইল পাশের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। তখন তারা সেখানে গিয়ে তাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল সকালে আইসিইউতে তার মৃত্যু হয়।

এ নিয়ে ভোটের সহিংসতায় রাজশাহীতে তিন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর মৃত্যু হলো। ভোটের দিন তানোর উপজেলার মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে আওয়ামী লীগ নেতা মোদাচ্ছের হোসেন এবং মোহনপুরে পাকুড়িয়া ভোটকেন্দ্রে আওয়ামী লীগ কর্মী মেরাজুল ইসলাম নিহত হন।