ভোট ব্যবধান বেশি হওয়া নিয়ে গবেষণা হতে পারে : রিয়াজুল|114582|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০
ভোট ব্যবধান বেশি হওয়া নিয়ে গবেষণা হতে পারে : রিয়াজুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভোট ব্যবধান বেশি হওয়া নিয়ে গবেষণা হতে পারে : রিয়াজুল

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের জয়-পরাজয়ে ভোটের বড় ব্যবধান নিয়ে গবেষণা হতে পারে। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

গত রবিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ২৮৮ আসন পায় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। অন্যদিকে মাত্র সাত আসন পায় বিএনপি ও জোটের প্রার্থীরা।

সংবাদ সম্মেলনে নোয়াখালীতে ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে এক নারীর সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনা তদন্ত করার কথা জানান মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যান। এতে নির্বাচনকেন্দ্রিক মানবাধিকার সংরক্ষণ নিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি। নির্বাচনে ভোটের ব্যবধান এত বেশি কেন জানতে চাইলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘এর কারণ আমি বলতে পারব না। তবে এত ভোটের ব্যবধান কেন হলো, এটা নিয়ে একটা গবেষণা হতে পারে। এটা গবেষণা করে দেখা উচিত।’

ভোটের দিন মানবাধিকার কমিশন সারা দেশ থেকে ৫২টি অভিযোগ পেয়েছে জানিয়ে রিয়াজুল হক বলেন, ‘বেশিরভাগ অভিযোগ ভয়ভীতি প্রদর্শন, ভোট না দিতে বাধা প্রদান, এ রকম আসছে।’ এসব অভিযোগের বিষয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন সচিবকে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সহিংসতায় নিহত ব্যক্তিদের বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে রিয়াজুল বলেন, ‘যে মানুষগুলো সহিংসতায় মারা গেছেন, আমরা তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি। নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেব। তারা এসব বিষয়ে কী ব্যবস্থা গ্রহণ করে, তাও জানব। আমরা কমিশনের পক্ষ থেকেও তদন্ত করব।’

দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যাপারে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, ‘কোনো মৃত্যুই কাম্য নয়। তবে ১৯৯১ সাল থেকে এ পর্যন্ত যত নির্বাচন হয়েছে, সেগুলোর তুলনায় এবার সহিংসতার হার কম। তাই দলীয় সরকারের অধীনেও অংশগ্রহণমূলক ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব।’

রাজধানীর কয়েকটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করে নিজের অভিজ্ঞতার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কয়েকটি কেন্দ্রে তাদের (ঐক্যফ্রন্ট) এজেন্ট দেখেছি; কিছু কেন্দ্রে এজেন্ট দেখিনি। গুলশানের একটি কেন্দ্রে আমি তাদের এজেন্ট পাইনি। তবে বনানী ও বেইলি রোডে তাদের এজেন্ট ছিল।’