আন্দোলনের নামে স্বার্থ হাসিলের চেষ্টায় ছাড় নয়: ডিএমপি কমিশনার|116586|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:১৩
আন্দোলনের নামে স্বার্থ হাসিলের চেষ্টায় ছাড় নয়: ডিএমপি কমিশনার
নিজস্ব প্রতিবেদক

আন্দোলনের নামে স্বার্থ হাসিলের চেষ্টায় ছাড় নয়: ডিএমপি কমিশনার

শনিবার রাজধানীতে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করে উত্তরণ। ছবি: দেশ রূপান্তর

আন্দোলনের নামে ব্যক্তি বা গোষ্ঠী স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

শনিবার রাজধানীর মিরপুর কলেজ প্রাঙ্গণে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উত্তরণ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি (প্রশাসন) হাবিবুর রহমান, ডিএমপির মিরপুর ডিভিশনের উপ-পুলিশ কমিশনার মাসুদ আহম্মদ, নাসা গ্রুপের পরিচালক মেজর (অব.) মল্লিক মনিরুজ্জামান, উত্তরণ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান শায়ক ও সমন্বয়কারী এম এম মাহবুব হাসান।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, শ্রমিকদের আন্দোলনের পেছনে কেউ উসকানি দিয়ে নাশকতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে কি না তা খতিয়ে দেখতে গোয়েন্দা সংস্থাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলনের নামে কেউ স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এ ছাড়া শ্রমিকদের দাবি নিয়ে মন্ত্রণালয়, বিজিএমইএ কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, খুব শিগগির তাদের দাবি মিটিয়ে দেওয়া হবে। এ সময় তিনি শ্রমিকদের সড়ক ছেড়ে দিয়ে নিজ নিজ কর্মস্থলে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমিশনার বলেন  বাংলাদেশের উন্নয়নের  সঙ্গে আপনাদেরও (তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ) উন্নয়ন হবে। আপনারা সমাজের মূল ধারায় চলে আসবেন। আপনাদের যে কোন সহযোগিতায় আমাদের পাশে পাবেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ২০১৩ সালে আপনাদের তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সমাজ কল্যাণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে আপনাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এই বাংলাদেশ। আপনারা নিজেদের হীনমন্যতা দূর করে সমাজের মূলধারায় নিজেদের সম্পৃক্ত করতে শিক্ষা গ্রহণ করুন।

আছাদুজ্জামান আরো বলেন, আপনারা কর্মসংস্থানের প্রকল্প নিয়ে আসেন, আপনাদের যেকোনো প্রকল্প বাস্তবায়নে আমরা কাজ করব। আপনাদের কর্মসংস্থানের জন্য ‘উত্তরণ ফাউন্ডেশন’ যেভাবে কাজ করছে আমরাও আপনাদের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য ডিআইজি হাবিবুর রহমান বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সদস্যরা আমাদের সমাজেরই অংশ। ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে হিজড়াদের স্বীকৃতি দিয়েছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর আপ্রাণ চেষ্টায় এই তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যদের দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে যুক্ত করব।