logo
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৩:১১
বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর কমিটিতে বিশেষ দায়িত্বে ড. কামাল
উম্মুল ওয়ারা সুইটি

বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর কমিটিতে বিশেষ দায়িত্বে ড. কামাল

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পাশে দাঁড়ানো ড. কামাল হোসেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার। কিছুদিনের মধ্যেই এজন্য একটি সর্বদলীয় কমিটি গঠন করা হবে। কমিটিতে গণফোরাম নেতা ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনকে বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হবে।

এছাড়া ১৯৬৯ সালে দেশ স্বাধীন করার জন্য বঙ্গবন্ধু যে সর্বদলীয় ছাত্রসংগ্রাম পরিষদ গঠন করেছিলেন, সেই পরিষদের নেতাদের মধ্যে যারা জীবিত আছেন তারা এই কমিটিতে থাকছেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কর্নেল (অব.) ফারুক খান দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী আমরা খুব জাঁকজমকভাবে পালন করতে চাই। সেক্ষেত্রে অবশ্যই বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে ছিলেন, তার সান্নিধ্য পেয়েছেন তারা প্রাধান্য পাবেন। ড. কামাল সেখানে থাকতে পারেন।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনে করেন, বঙ্গবন্ধু জাতির সবার কাছে পরম পূজনীয়। কাজেই সবাইকে নিয়েই তিনি এই উৎসব করবেন। একইভাবে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীও সবাইকে নিয়েই উদযাপন করা হবে। যারা এই উৎসবে আসবেন না, নিজেকে শামিল করবেন না, তাদের সম্পর্কে জনগণের ধারণা হয়ে যাবে।’

আওয়ামী লীগের একজন সাংগঠনিক সম্পাদক জানিয়েছেন, নির্বাচনের আগেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছে এই বার্তা পাঠানো হয়েছে- ‘মুজিববর্ষ’ সবাইকে নিয়ে পালন করতে চান শেখ হাসিনা।

তিনি জানান, আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদ, মোহাম্মদ নাসিম ও মতিয়া চৌধুরী, জাসদের হাসানুল হক ইনু, ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেনন, সিপিবির মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমসহ কয়েকজন নেতাকে সামনে রেখে ‘মুজিববর্ষ’র সূচি সাজানো হবে। ড. কামাল হোসেন বিশেষ দায়িত্বে থাকবেন।