প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব, বিরোধিতা নুরের |131291|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ মার্চ, ২০১৯ ১৩:৪০
প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব, বিরোধিতা নুরের
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব, বিরোধিতা নুরের

ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) আজীবন সম্মাননা (অনারারি) সদস্যপদ দিতে একটি প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রায় ২৮ বছর পর শনিবার দুপুরে অনুষ্ঠিত ডাকসুর কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভায় তাকে আজীবন সম্মাননা সদস্যপদ দেওয়ার প্রস্তাবটি ২৪-১ ভোটে পাস করা হয়। প্রস্তাবের বিপক্ষে একমাত্র সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর ভোট দিয়েছেন।

নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তী কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে এবিষয়ে চূড়ান্ত ঘোষণা দেওয়া হবে।

বিরোধিতার বিষয়টি জানিয়ে নুর বলেন, এই ডাকসু নির্বাচন বিতর্কিত। তাই প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সম্মাননা সদস্য করার বিরোধিতা করেছি।

এর আগে সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর এবং সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানীসহ ডাকসুর নবনির্বাচিত নেতাদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে সহ-সাধারণ সম্পাদক এজিএস সাদ্দাম হোসেনসহ নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে দায়িত্ব হস্তান্তর চলাকালে পুনর্নির্বাচনের দাবিতে ক্যাম্পাসে বিভিন্ন প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছে ছাত্রদল, প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য এবং ছাত্র ফেডারেশন।

ছাত্রদল মুখে কালো কাপড় বেঁধে মৌন মিছিল, ছাত্র ঐক্য লালকার্ড প্রদর্শন আর ছাত্র ফেডারেশন বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছে।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে শুক্রবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ভিপি নুর দায়িত্ব গ্রহণের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন। বৃহস্পতিবার রাতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের এক সভায় দায়িত্ব গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়।

দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে ভোট বর্জন করেও ভিপি পদে নির্বাচিত হয়েছেন নুরুল হক নুর। সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের গোলাম রাব্বানী। সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) হয়েছেন সাদ্দাম হোসেন।

ডাকসুর মোট ২৫টি পদের মধ্যে ২৩ টিতেই ছাত্রলীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। ১৮টি হল সংসদের মধ্যে ১২ টিতে ভিপি পদে জয়ী হয়েছে ছাত্রলীগ। বাকি ছয়টি হলে ভিপি পদে জয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।

তবে বস্তাভর্তি সিলমারা ব্যালট উদ্ধারের ঘটনায় এবং বিভিন্ন অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে ভোটের দিন দুপুরেই ছাত্রলীগ ছাড়া বাকি সাত প্যানেলের শিক্ষার্থীরা নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয়। পরদিন নতুন নির্বাচনের দাবিতে কর্মসূচি ঘোষণা করে বাম জোটসহ পাঁচটি প্যানেল।