প্লেন বানিয়ে পাক বিমানবাহিনীর নজরে পপকর্ন বিক্রেতা|140625|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৬ মে, ২০১৯ ১৫:৪৬
প্লেন বানিয়ে পাক বিমানবাহিনীর নজরে পপকর্ন বিক্রেতা
অনলাইন ডেস্ক

প্লেন বানিয়ে পাক বিমানবাহিনীর নজরে পপকর্ন বিক্রেতা

ইঞ্জিন বানিয়েছেন রাস্তা কাটার মেশিন দিয়ে। পাটপণ্যের কিংবা প্লাস্টিকের ত্রিপল জাতীয় কিছু একটা দিয়ে বানিয়েছেন পাখা। সঙ্গে জুড়েছেন গাড়ির চাকা। পাকিস্তানের পপকর্ন বিক্রেতা মুহাম্মদ ফাইয়াজ এভাবে প্লেন বানিয়ে দেশটির বিমানবাহিনীর প্রশংসায় ভাসছেন।

পাকিস্তানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, ফাইয়াজ লেখাপড়া বেশি দূর করতে পারেননি। নিজের দারিদ্র্য দূর করতে অল্প বয়সে পপকর্ন বিক্রিতে নেমে পড়েন। অনলাইনে ভিডিও দেখে দেখে তিনি প্নেন বানানোর চেষ্টা করেন। এক সময় সফলও হয়ে যান।

প্রথমবার আকাশে ওড়ার পর তিনি বলেন, ‘সত্যি সত্যি আমি বাতাসে ভেসেছি। আর কিছু ভাবতে পারছিলাম না।’

তিনি জানান, প্লেন বানানোর খবর শুনে বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে কর্মকর্তারা একাধিকবার তার সঙ্গে দেখা করেন। তাকে একটি সার্টিফিকেটও দিয়েছেন। পাঞ্জাব প্রদেশে তার গ্রামে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সাধারণ মানুষও তার প্লেন দেখতে আসছে।

৩২ বছর বয়সী ফাইয়াজ বলেন, ‘ছেলেবেলা থেকে বিমানবাহিনীতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা ছিল আমার। কিন্তু অল্প বয়সের সময় বাবা মারা যাওয়ায় সেটি আর হয়নি।’

প্রথমদিন ফাইয়াজ প্রায় তিন কিলোমিটারের মতো উড়ে যান। কিন্তু গ্রামবাসী সেটি বিশ্বাস করতে চায়নি। এরপর পাকিস্তান দিবসে সবার সামনে তিনি আকাশে ওড়ার প্রস্তুতি নেন। কিন্তু পুলিশ এসে তাকে ধরে নিয়ে যায়।

সাংবাদিকেরা থানায় গেলে জানানো হয়, এই প্লেন নিয়ে আকাশে ওড়া নিরাপদ নয় বলে ফাইয়াজকে আটক করা হয়েছে। পরে টাকা দিয়ে জামিন নিতে হয় তাকে।

বিমানবাহিনীর কানে এই খবর যাওয়ার পর তারা ফাইয়াজের চেষ্টাকে সাধুবাদ জানান। প্লেনটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘মিনি বেসিক এয়ারপ্লেন’।