ইসরায়েলকে বয়কট করলো রক ব্যান্ড উলফ এলিস|142701|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৫ মে, ২০১৯ ১৯:২৫
ইসরায়েলকে বয়কট করলো রক ব্যান্ড উলফ এলিস
অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলকে বয়কট করলো রক ব্যান্ড উলফ এলিস

ইসরায়েলের তেল আবিবে চলমান ‘ইউরোভিশন সং কনটেস্ট-২০১৯’ বয়কট করলো ব্রিটিশ অলটারনেটিভ রক ব্যান্ড উলফ এলিস।

মারকারি প্রাইজ জেতা ব্যান্ডটির মতে, সংস্কৃতিকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে ইসরায়েল। সঙ্গে বলা হয়, দেশটি ধারাবাহিকভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করে যাচ্ছে।

স্কাই নিউজের কাছে দলটির গিটারিস্ট জোফ ওডি দাবি করেন, মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়কে সাফ-সুতরো করার জন্য ইউরোভিশন ও সংস্কৃতিকে ব্যবহার করছে ইসরায়েল।

আরও জানান, এই বয়কট ফিলিস্তিনের সুশীল সমাজের আবেদনের প্রতিক্রিয়া।

তিনি বলেন, “আমরা ফিলিস্তিনকে জিজ্ঞাসা করেছি- ‘তোমরা কি চাও আমরা আসি?’ তারা বললেন, ‘না- এসো না।”

তাই তারা নির্যাতিতদের প্রতি সম্মান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় উলফ এলিস।

গত বছরের শেষ দিকে দ্য ইন্ডিপেনডেন্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইসরায়েলকে বয়কটের প্রতি সমর্থনের কথা জানায় ব্যান্ডটি।

তখন জানান, বেশ আগেই দেশটিতে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তারা।

জনপ্রিয় গায়ক নেতা গত বছর বিজয়ী হওয়ার কারণে এবারের ইউরোভিশনের আয়োজক হয় ইসরায়েল। মঙ্গলবার ও বুধবার প্রতিযোগিতার সেমি-ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনাল হবে শনিবার।

এর আগে উলফ এলিসের সঙ্গে গায়ক রজার ওয়াটার্স ও পিটার গাব্রিয়েলসহ একদল শিল্পী ইউরোভিশনকে বয়কট করার জন্য খোলা চিঠি লেখে। বিবিসিকে নিউজ কাভারেজ না দেওয়ার আহ্বান জানায়। তবে প্রত্যুত্তরে সংবাদমাধ্যমটি জানায়, এটি কোনো রাজনৈতিক উদ্যোগ নয়।

২০০৫ সাল শুরু হয় বয়কট, ডিভেস্টমেনট, স্যাংকশনস (বিডিএস) আন্দোলন। মানবাধিকার লঙ্ঘনে অভিযোগ উদ্যোগটি ইসরায়েল সম্পূর্ণ সাংস্কৃতিক বয়কটের ডাক দেয়।

তবে ইউরোভিশন বয়কটের বিরুদ্ধে আরেক দল শিল্পী, সাংবাদিক খোলা চিঠি দিয়েছে।

ইউরোভিশনের সমাপনী আয়োজনে দুটি গান পরিবেশন করবেন পপ সম্রাজ্ঞী ম্যাডোনা। পারিশ্রমিক হিসেবে তিনি পাচ্ছেন ১০ লাখ ডলার।