পদ্মা সেতুতে বসল ১৩তম স্প্যান|144834|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ মে, ২০১৯ ১১:০৮
পদ্মা সেতুতে বসল ১৩তম স্প্যান
নিজস্ব প্রতিবেদক

পদ্মা সেতুতে বসল ১৩তম স্প্যান

পদ্মা সেতুর ১৩তম স্প্যান ‘৩বি’ বসানো হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটের দিকে স্প্যানটি মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে ১৪ ও ১৫ নম্বর পিলারের ওপর দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীদের চেষ্টায় সফলভাবে বসানো হয়। এতে দৃশ্যমান হলো সেতুর ১৯৫০ মিটার।

সকাল থেকেই মেঘাচ্ছন্ন আকাশ আর পদ্মা উত্তাল রয়েছে। এর মধ্যেই শুরু হয় স্প্যান বসানোর কার্যক্রম। দু’দিনের চেষ্টায় স্প্যানটি বসানো হয়েছে। এরজন্য নির্ধারিত তারিখ পরিবর্তন করতে হয়েছে কয়েকবার। তবে এভাবে একের পর এক স্প্যান বসিয়ে দৈর্ঘ্য বেড়ে চলছে সেতুর। দ্বাদশ স্প্যান (অস্থায়ী) বসানোর ১৯ দিনের মাথায় স্থায়ীভাবে বসলো এই স্প্যানটি।

এর আগে শুক্রবার বসানো সম্ভব হয়নি ত্রয়োদশ স্প্যানটি। লিফটিং হ্যাঙ্গার প্রস্তুত না থাকা, বৈরী আবহাওয়ায় আলোর স্বল্পতা ও বিলম্বে স্প্যান নিয়ে রওনা করার কারণে গতকাল দুপুরে এ স্প্যান বসানোর কর্মকা- স্থগিত করা হয়।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে লৌহজং উপজেলার মাওয়ার কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ৩-বি নামে স্প্যান নিয়ে রওনা হয় ভাসমান ক্রেন তিয়ান-ই। ৩ হাজার ৬০০ টন ধারণক্ষমতার ভাসমান ক্রেনটি ১৫০ মিটার দীর্ঘ স্প্যানটি নিয়ে বেলা পৌনে ১২টার দিকে ১৪ ও ১৫ নম্বর পিলারের কাছে পৌঁছে। এরপর স্প্যান বসানোর কাজ শুরু করেন দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা।

পদ্মা সেতুর প্রকৌশল সূত্র জানায়, চলতি মাসেই শরীয়তপুরের জাজিরা ও মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের মাঝামাঝি ২০ ও ২১ নম্বর পিলারের ওপর সেতুর দ্বাদশ স্প্যান বসানো হয়েছিল। এখন প্রতি মাসেই এক থেকে একাধিক স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে সংশ্লিষ্টদের।

এতে করে পদ্মা সেতুর মহাকর্মযজ্ঞে গতিশীলতা এসেছে বলে মনে করছেন তারা। জাজিরা প্রান্তে সেতুর ১ হাজার ৩৫০ মিটার ও মাওয়া প্রান্তের একটি স্থায়ী ও একটি অস্থায়ী স্প্যান মিলে মোট ৩০০ মিটার এবং সেতুর মাঝ বরাবর ৫-এফ স্প্যানটি অস্থায়ীভাবে বসানো শেষ হওয়ায় সেতুর মোট ১ হাজার ৮০০ মিটার আগেই দৃশ্যমান আছে। তবে স্প্যানগুলো ভিন্ন ভিন্ন মডিউলে বসানোর কারণে দৃশ্যমান অংশগুলো এক সারিতে নয় বরং বিচ্ছিন্নভাবে থাকবে।

এদিকে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বরে পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয়েছিল। চার মাস পর ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি দ্বিতীয় স্প্যান বসে। এরপর থেকে একের পর এক স্প্যান বসতে থাকে পদ্মা সেতুতে। মাওয়া প্রান্তে এ স্প্যান বসানো হলে পদ্মা সেতুতে বাকি থাকবে আরও ২৮টি স্প্যান।