হোম অ্যাডভান্টেজই আসল নয় : আর্চার|145204|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ মে, ২০১৯ ০০:০০
হোম অ্যাডভান্টেজই আসল নয় : আর্চার
ক্রীড়া ডেস্ক

হোম অ্যাডভান্টেজই আসল নয় : আর্চার

২০১৫ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের পর চার বছরে ব্যাপক উন্নতি করেছে ইংল্যান্ড। ওয়ানডেতে এখন অন্যতম সেরা দল বলা হয় তাদের। র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে থেকে বিশ্বকাপ শুরু করবে ইংল্যান্ড। তার ওপর ঘরের মাঠে টুর্নামেন্ট বলে স্বাগতিকদের ভালো করার সম্ভাবনা দেখছেন বিশ্লেষকরা। এত কিছুর পরও ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে থাকা অলরাউন্ডার জোফরা আর্চার নিজেদের পিছিয়েই রাখলেন। হোম কন্ডিশনের সুবিধা শিরোপা জয়ে কোনো কাজে আসবে না বলে জানান তিনি। ৪৪ বছরের অপেক্ষা ঘোচাতে হলে ইংল্যান্ডকে মাঠের খেলা দিয়েই সাফল্য পেতে হবে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের প্রথম অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচেও খেলেন আর্চার, বদলি হিসেবে। কিন্তু মাঠে নেমেই ইনজুরিতে পড়তে হয়। ফিল্ডিং করার সময় সøাইড দিতে গিয়ে হালকা চোট পান পায়ে। মাঠ ছেড়ে গেলেও হালকা শুশ্রƒষা শেষে আবার ফিরে আসেন মাঠে। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের সম্ভাবনা নিয়ে স্পোর্টসমেইলের প্রশ্নের জবাব দেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে। তাতে আর্চার জানান হোম কন্ডিশন শিরোপা জয়ে কোনো ভূমিকা রাখবে না, ‘এখানে কোনো হোম অ্যাডভান্টেজ থাকবে না। পাকিস্তানের বিপক্ষে সম্প্রতি আমরা কার্ডিফ ও লিডসে খেলেছি। সবাই দেখেছে আমাদের চেয়ে ওদের সমর্থক বেশি ছিল। এছাড়া ভারতের বিপক্ষে যেদিন খেলব সেদিনও একই অবস্থা থাকবে। হোম অ্যাডভান্টেজ পেলে অবশ্যই ভালো হয়। যদি সেটা নাও পাই মাঠের পারফরম্যান্সে কোনো প্রভাব ফেলবে না। আমরা জানি মাঠে কী করতে হবে, যতক্ষণ সব ঠিকঠাক চলবে ততক্ষণ সমর্থক কোনো বিষয় না।’ বিশ্বকাপ দলে নাটকীয়ভাবে ঢুকে পড়েন আর্চার। বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া এ তরুণের পারফরম্যান্সের দ্যুতি ছিল। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের জার্সিতে না খেলাটা পিছিয়ে রেখেছিল আর্চারকে। ভাগ্যক্রমে এই আক্ষেপটাও ঘুচে যায় টুর্নামেন্টের একদম আগে। ইংল্যান্ডের জার্সিতে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকের পর ওয়ানডে দলেও সুযোগ পেয়ে যান পাকিস্তানের বিপক্ষে। দুই ম্যাচেই ভালো করে চলে আসেন বিশ্বকাপ দলে। সেই থেকে ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ে আর্চার মূল ভূমিকা রাখতে পারেন বলে ধরা হচ্ছে।