মুরসির মৃত্যুর খবরে সর্বোচ্চ ৪২ শব্দ খরচ মিসরীয় পত্রিকার|150008|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২০ জুন, ২০১৯ ২০:০৯
মুরসির মৃত্যুর খবরে সর্বোচ্চ ৪২ শব্দ খরচ মিসরীয় পত্রিকার
অনলাইন ডেস্ক

মুরসির মৃত্যুর খবরে সর্বোচ্চ ৪২ শব্দ খরচ মিসরীয় পত্রিকার

মিসরের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুর খবর গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার করে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। কিন্তু এই ইসলামপন্থী এই নেতার মৃত্যু নিজ দেশের দৈনিকগুলোতে তেমন গুরুত্ব পায়নি।

গত সোমবার আদালতে বিচারের শুনানি চলাকালে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ৬৭ বছর বয়সী মুরসি। পরের দিন ভোরেই কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে কায়রোতে তাকে দাফন করা হয়।

বিবিসি জানায়, আরব বসন্তের পর ক্ষমতায় আসা মুরসির মৃত্যুর সংবাদ গুরুত্ব পায়নি মিসরের পত্রিকাগুলোতে। এর চেয়ে আফ্রিকান কাপ অব নেশন খবরই মুখ্য হয়ে উঠতে দেখা গেছে তাদের কাছে।

চলতি বছরে এ ফুটবল আসরের আয়োজক মিসর। প্রথম পাতাতে এর খবরই বড় করে প্রকাশ করে দৈনিকগুলো।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনগুলোতে শুধু মুরসির মৃত্যুর তথ্য দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, বিচারকের প্রশ্নবাণে বিপর্যস্ত হয়ে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন এবং পরবর্তীতে তিনি মারা যান।

পত্রিকাগুলো তার মৃত্যুর খবর ছাপায় ভেতরের পাতায় ছোট করে। আরবিতে সর্বোচ্চ ৪২টি শব্দ খরচ করেছে তাও।  পত্রিকা, রেডিও ও টিভি চ্যানেলগুলোতে একই চিত্র দেখা গেছে।   

তিনি যে দেশটির প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট, সেটিও উল্লেখ করা হয়নি। শুধু তার পূর্ণাঙ্গ নাম লেখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মিসর বিষয়ক গবেষক হোসেইন বৌমি বলেন, “সরকারি নিরাপত্তা সংস্থার কড়া নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হয় দেশটির গণমাধ্যম। তাদের পাঠানো বার্তা কিংবা ই-মেইল প্রচার করে টেলিভিশন চ্যানেলগুলো।”

তিনি আরও বলেন, “বিশেষ কোনো বিষয়ে কিংবা ইস্যুতে কীভাবে খবর প্রচার করতে হবে তাও স্ক্রিপ্ট করে পাঠানো হয়।”