বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী|151906|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৯ জুন, ২০১৯ ২১:৩১
বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

শনিবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটি “তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ” শীর্ষক অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে।  

বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ছয়জনের মধ্যে দুজনের অবস্থান নিশ্চিত হওয়া গেছে জানিয়ে শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘এদের মধ্যে একজন বিদেশে মারা গেছে। আরও তিনজনের অবস্থান সম্পর্কে খবর শুনেছি। তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর না করা গেলে, আমরা নিজেদের ব্যর্থ মনে করব। চেষ্টা অব্যাহত আছে আমরা তাদের ফেরত আনতে পারব’।

তবে শাহরিয়ার আলম এমন দাবি করলেও দু দিন আগে গত ২৭ জুন এক অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার বেনোয়া প্রিফনটেইন জানান, কানাডায় পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীকে ফেরত দেবে না দেশটি। তাকে ফেরত আনতে বাংলাদেশ সরকারের করা মামলার শুনানির উল্লেখ করে তিনি বলেন, কানাডা থেকে তাকে এ দেশে ফেরত পাঠালে তার মৃত্যুদণ্ড হতে পারে, এমন ব্যক্তিকে ফেরত দেয় না তার দেশ। 

সরকারের উপর ভারতের প্রভাব নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে শাহরিয়ার আলম বলেন, ভারত আমাদের মুক্তিযুদ্ধে সবচেয়ে বড় সমর্থনকারী পক্ষ। তাদের সাথে আমাদের শেকড়ের সম্পর্ক। কোনো বন্ধুপ্রতিম দেশকে হেয় করার মতো নোংরা রাজনীতি আওয়ামী লীগ করে না।

দেশে বিএনপি-জামায়াত অপপ্রচার চালাচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ৭০ বছরের ইতিহাসের মধ্যে ৫৬ বছর বিরোধী দল ছিল। কতটা শক্তিশালী হলে একটি দল বারবার ক্ষমতায় আসে! 

দেশের পিছিয়ে পড়া নৃগোষ্ঠী নিয়ে সরকারের কী ভাবনা- এর জবাবে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সব ধর্ম-শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্য। তাই, পিছিয়ে পড়া ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন্য সরকার নির্বাচনী ইশতেহারে ও বাজেটে উল্লেখ করেছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির সভাপতি এইচ টি ইমাম, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, নারী নেত্রী অধ্যাপক মেরিনা জাহান প্রমুখ।