নতুন নীতিমালায় অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ড পাবেন না|161350|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০
নতুন নীতিমালায় অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ড পাবেন না
প্রতিদিন ডেস্ক

নতুন নীতিমালায় অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ড পাবেন না

অভিবাসীদের নিয়ে নতুন নীতিমালা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাম্প প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রে কোনো অভিবাসী মেডিকেইড ফুডস্টম্প বা আবাসন সুবিধা নিলে তার গ্রিনকার্ড অথবা নাগরিকত্ব পেতে অসুবিধা হবে এই নতুন নীতিমালায়।

ট্রাম্প প্রশাসন বলছেÑ যারা খাদ্য, বাসস্থান ও চিকিৎসার মতো বিষয়ে সরকারের সহযোগিতা চাইবে, ভবিষ্যতে তাদের নাগরিকত্ব ও ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন বাতিল করা হবে। গত সোমবার ‘পাবলিক চার্জ রুল’ নামে প্রকাশিত এই নীতিমালা আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে সিএনএন।

এই নীতিমালা চালু হলে দেশটিতে বসবাসরত কয়েক লাখ অভিবাসীর গ্রিনকার্ড পাওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে না। যে অভিবাসীরা ভবিষ্যতে সরকারি সাহায্যের দ্বারস্থ হতে পারেন বলে সরকার মনে করবে তাদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশও বন্ধ করা হবে। আর যারা এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে আছেন, তারা গ্রিনকার্ড কিংবা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পাবেন না।

হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমেরিকান নাগরিকদের সুবিধা রক্ষার্থে অভিবাসীদের অবশ্যই স্বাবলম্বী হতে হবে। বিপুলসংখ্যক অ-নাগরিক ও তাদের পরিবার আমাদের মহৎ জনসেবার সুবিধা নিচ্ছে। অন্যথায় এ সম্পদ দুর্বল আমেরিকানদের কাছে যেত।’ তবে এরমধ্যেই যারা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পেয়েছেন, এই ঘোষণা তাদের কোনো সমস্যা হবে না। একই সঙ্গে শরণার্থী ও রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীরাও এর বাইরে থাকবেন।

এক পরিসংখ্যান বলছে, ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে অন্তত ২ কোটি ২০ লাখ বৈধ বাসিন্দা যাদের নাগরিকত্ব নেই, তারা ক্ষতির শিকার হবেন। এ বিষয়ে নাগরিক অধিকারবিষয়ক সংগঠনগুলো বলেছে, এ আদেশে স্বল্প আয়ের অভিবাসীদের অন্যায়ভাবে লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। দেশটির জাতীয় অভিবাসন আইন কেন্দ্র (এনআইএলসি) জানিয়েছে, তারা ট্রাম্প প্রশাসনের এ আদেশের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ জানাবে।