দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে চন্দনাইশে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা|169246|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:০৩
দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে চন্দনাইশে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা
চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে চন্দনাইশে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা

ছবি: দেশ রূপান্তর

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্ডপের নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে কাজ করবে পুলিশ। অপরাধ নিয়ন্ত্রণে কোনো ধরণের ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন সহকারী পুলিশ সুপার আনোয়ারা সার্কেল জনাব মফিজ উদ্দিন চৌধুরী।

শনিবার অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জনাব কেশব চক্রবর্ত্তী।

এ সময় সহকারী পুলিশ সুপার আরও বলেন, প্রতিটি পূজামন্ডপে আনসার, পুলিশ মোতায়েন থাকবে। একই সাথে ইউনিয়ন ভিত্তিক ভ্রাম্যমান পুলিশ টিম সার্বক্ষনিক টহল দিবে। মোটরসাইকেলের মহড়া, মাতলামি, ইভটিজিং, ছিনতাই রোধে জিরো টলারেন্স থাকবে পুলিশ।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চন্দনাইশ থানার ওসি (তদন্ত) জনাব মাহবুবুল আলম আকন্দ, দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পুরিদর্শক জনাব মনিরুল ইসলাম ভূইয়া, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি ও হাশিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলগীরুল ইসলাম চৌধুরী, বরকল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান চৌধুরী, বৈলতলী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনোয়ারুল মোস্তফা দুলাল।

কমিউনিটি পুলিশের সাধারন সম্পাদক জাবেদ  মো. গউছ মিল্টন, পুজা কমিটির পক্ষ থেকে বলরাম চক্রবর্ত্তী, অরুপ রতন চক্রবর্ত্তী, অমিতাব চৌধুরী টিটো, বিষ্ণু যশা চক্রবর্ত্তী, ডা. কাজল বৈদ্য, সমীরন দাশ তপন, মাস্টার বিজয় কৃষ্ণ ধর, বিকাশ কান্তি দে, অলক কুমার দে, ভবশংকর ধর, কৃষ্ণ চক্রবর্ত্তী, সত্যপদ তালুকদার সহ উপজেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকবৃন্দ।

মতবিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন চন্দনাইশ থানার সেকেন্ড অফিসার (এসআই) মো. মোজাম্মেল হোসেন।

উল্লেখ্য, এ উপজেলায়  এবার অনুষ্ঠিতব্য ১২৩টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গাপূজার মন্ডপের মধ্যে ৩৯টি অতি গুরুত্বপূর্ণ, ১৮টি গুরুপূর্ণ এবং ৬৬টি সাধারণ পূজা মন্ডপ হিসাবে চিহ্নিত করা হলেও প্রতিটি পূজামন্ডপে সার্বক্ষনিক নজর রাখা হবে।