‘তথ্য অধিকার আইনের বাস্তবায়ন জরুরি’|170668|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:৩২
‘তথ্য অধিকার আইনের বাস্তবায়ন জরুরি’
নিজস্ব প্রতিবেদক

‘তথ্য অধিকার আইনের বাস্তবায়ন জরুরি’

জনগণের তথ্য জানার আগ্রহ এবং প্রয়োজনকে মাথায় রেখে সরকারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে তথ্য অধিকার আইনের বাস্তবায়ন জরুরি। এজন্য জনগণকে সচেতন করে তুলতে হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য কমিশনের প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ‘তথ্য সবার অধিকার: থাকবে না কেউ পেছনে আর’ শ্লোগানকে সামনে রেখে তথ্য কমিশন আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধান তথ্য কমিশনার।

তথ্য কমিশনার বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হলে তথ্য অধিকার নিশ্চিত করার বিকল্প নেই। দেশে এখনো সবার জন্য তথ্য অধিকার নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। জনগনের তথ্য অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

মরতুজা আহমদ বলেন, যারা তথ্য প্রদান করবেন তাদের সুরক্ষার জন্য সাক্ষী সুরক্ষা আইনের মতো আলাদা আইন করা প্রয়োজন। সারাদেশে আইনটি ব্যাপক প্রয়োগে গণজোয়ার তৈরি করে জনসচেতনা বাড়াতে হবে। এটি তথ্য কমিশনের একার পক্ষে সম্ভব নয়।

কমিশনার বলেন, তথ্য কমিশন ইতোমধ্যেই সারাদেশে প্রশিক্ষণসহ নানা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। জনগণের সক্ষমতা নিশ্চিত করতে হলে এ আইন প্রয়োগের বিকল্প নেই। সমাজের সর্বস্তরে তথ্য অধিকার আইনের বাস্তবায়ন ঘটাতে হবে।

প্রেসক্লাব সভাপতি মো. সাইফুল আলম বলেন, ‘আমরা গণমাধ্যমকর্মী হিসেবে সবসময়ই চাই, তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত হোক। তবে যেসব তথ্য প্রকাশ করলে দেশ, জাতি ও সমাজের ক্ষতির আশংকা থাকে সেসব তথ্য প্রকাশের বিষয়ে বিবেচনা বোধ আমাদের থাকতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন তথ্য কমিশনের সচিব মো. তৌফিকুল আলম, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার, তথ্য কমিশনার সুরাইয়া বেগম প্রমুখ।