আবরার হত্যার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত চান ড. কামাল|173301|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:১৯
আবরার হত্যার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত চান ড. কামাল
নিজস্ব প্রতিবেদক

আবরার হত্যার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত চান ড. কামাল

ছবি: দেশ রূপান্তর

বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এজন্য উচ্চপর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে। কমিটিতে সাবেক বিচারপতি, সাবেক আমলা, সাবেক আইজিপিদের রাখতে হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

কামাল হোসেন বলেন, দেশ আজ ধ্বংসের মুখোমুখি। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই, সরকার ভিন্নমত সহ্য করছে না। ভিন্নমতের কারণে যেভাবে একটি মেধাবী ছেলেকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে, তাতে দেশবাসী উদ্বিগ্ন। এমন হত্যাকাণ্ড পরাধীন আমলেও ঘটেনি। এ রকম ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তারা জানোয়ার, জানোয়ারের থেকেও নিকৃষ্ট।

তিনি বলেন, যে ছাত্র রাজনীতি ছেলেদের পশুতে পরিণত করেছে, তা থেকে দেশের শিক্ষাঙ্গনকে মুক্ত করতে হবে। বর্তমান সংকটময় পরিস্থিতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে কার্যকর গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

ড. কামাল বলেন, যেকোনো মানুষের ভিন্নমত থাকতেই পারে, তাই বলে তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলতে হবে? এ কোন দেশ, কোন সমাজে আমরা বাস করছি? রুগ্‌ণ ও অসুস্থ রাজনীতির কারণে দেশে এক সংকটময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি বলেন, জনগণের মালিকানা জোরপূর্বক ছিনতাই করে ক্ষমতা দখলের কারণে আজ গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকুও মুছে যেতে বসেছে। সুশাসন ও জবাবদিহিতা নেই। নিবর্তনমূলক আইন করে সরকার জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা হরণ করেছে। এই ভয়াবহ অবস্থা থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দলের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ, মুকাব্বির খান এমপি, মেসবাহ উদ্দীন আহমদ, আমীন আমহদ আনসারী, মোশতাক আহমেদ প্রমুখ।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে শোক র‌্যালি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট : মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের আইনি চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এক বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে ঐক্যফ্রন্ট নেতা নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

একই সঙ্গে এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছে ফ্রন্ট। তিনি জানান, ১৩ অক্টোবর ফ্রন্টের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শেষে এই হত্যার প্রতিবাদে শোক মিছিল করবেন তারা।

মান্না বলেন, আমরা মনে করছি, যতক্ষণ পর্যন্ত এ অত্যাচার-নির্যাতনের শেষ না করতে পারব, যতক্ষণ পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ ক্যাম্পাসের গ্যারান্টি দিতে পারব ততক্ষণ আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

ড. কামালের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন জোটের নেতা জেএসডির আ স ম আবদুর রব, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিকল্পধারা বাংলাদেশ চেয়ারম্যান ড. নুরুল আমিন বেপারী, গণফোরামের কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, গণফোরাম নেতা অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিক, মোস্তাক আহমদ, জেএসডির তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের মমিনুল হক, শহিদুল্লাহ কায়সার, ডা. জাহিদ, ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, বিকল্পধারা বাংলাদেশের আজমিরি বেগম ছন্দা প্রমুখ।