নেত্রী ঘরেরটা শেষ করে পরকে ধরবেন: কাদের|176828|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:৩৪
নেত্রী ঘরেরটা শেষ করে পরকে ধরবেন: কাদের
চট্টগ্রাম ব্যুরো

নেত্রী ঘরেরটা শেষ করে পরকে ধরবেন: কাদের

চলমান শুদ্ধি অভিযানে শুধু আওয়ামী লীগের লোক নয়, বিএনপিরও কে, কি করেন সবার খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগের ৬টি সাংগঠনিক জেলার (চট্টগ্রাম মহানগর, চট্টগ্রাম উত্তর ও দক্ষিণ জেলা এবং বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা) প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কে, কোথায় বসে কোন অপকর্ম করছেন, অপরাধ করছেন তার খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। সময়মতো টের পাবেন। সময় মতো বুঝতে পারবেন। নেত্রী ঘরেরটা শেষ করে পরকে ধরবেন। সব অপরাধী ধরা পড়বে এই জালে। দলমত-নির্বিশেষে সবার বিরুদ্ধে অভিযান চলবে।

শুদ্ধি অভিযান নিয়ে বিএনপি নেতাদের সমালোচনার জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, একটা প্রমাণ দেখান দলের অপরাধীদের একজনেরও আপনারা শাস্তি দিয়েছেন কি না। বিএনপির সময় দেশ পর পর ৫ বার দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। তাদের মুখে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বক্তব্য ভূতের মুখে রাম নাম। হাওয়া ভবনের লুটপাটের কথা এ দেশের মানুষ ভুলে যায়নি। হাওয়া ভবন নাকি খাওয়া ভবন। তারেক জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে মুচলেকা দিয়ে রাজনীতি ছেড়ে দেবে বলে বিদেশ গিয়েছিলেন। এখন বিদেশ থেকে বসে বসে ষড়যন্ত্রের গুটি চালছেন। বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত করছেন।

নিজের লোককে শায়েস্তা করার সৎ সাহস শেখ হাসিনার আছে মন্তব্য করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি চট্টগ্রামে বলে যাচ্ছি- অপকর্মকারীরা সাবধান হয়ে যান। অপকর্ম করে কেউ পার পাবেন না। চিহ্নিত চাঁদাবাজরা সাবধান হয়ে যান, চিহ্নিত টেন্ডারবাজ, চিহ্নিত ভূমিদস্যু, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা সাবধান হয়ে যান। শেখ হাসিনার অ্যাকশন ডাইরেক্ট অ্যাকশন। অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা শুধু রাজনীতিক নন, তিনি একজন রাষ্ট্রনায়ক। রাজনীতিকরা চিন্তা করেন পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে কিন্তু রাষ্ট্রনায়করা চিন্তা করেন পরবর্তী জেনারেশন নিয়ে। ভিশন ২০২১, ২০৪১ ও ২১০০ সাল পর্যন্ত একশ বছরের মহাপরিকল্পনা নিয়ে শেখ হাসিনা এগিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ জিডিপিতে এশিয়ায় সবার শীর্ষে। আজকে বাংলাদেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানকে আর্থসামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে পেছনে ফেলেছে। এ কৃতিত্ব শেখ হাসিনার। গত ৪৪ বছরে সবচেয়ে জনপ্রিয়, সাহসী ও দূরদর্শী নেত্রীর নাম শেখ হাসিনা।

সভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন আমরা শেষ করব। এ লক্ষে চট্টগ্রামের ৬ সাংগঠনিক কমিটির আওতাভুক্ত সকল জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড কমিটি শেষ করতে হবে। আগামী ২৪ নভেম্বর খাগড়াছড়ি জেলা, ২৫ নভেম্বর রাঙামাটি জেলা, ২৬ নভেম্বর বান্দরবান জেলা, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ৩০ নভেম্বর ও ৩০ নভেম্বরের মধ্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগকে সকল উপজেলা ও ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা সম্মেলন করতে হবে এবং  ১১ নভেম্বর চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা ডেকে সম্মেলনের বিষয়ে আলোচনা করা হবে।’

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে এবং চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপ-দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।