পরকীয়াবিরোধী আইন প্রণেতাই ধরা পরকীয়ায়|177876|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:২৯
পরকীয়াবিরোধী আইন প্রণেতাই ধরা পরকীয়ায়
অনলাইন ডেস্ক

পরকীয়াবিরোধী আইন প্রণেতাই ধরা পরকীয়ায়

ছবি: এএফপি।

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে পরকীয়বিরোধী আইন প্রণেতাই শাস্তিভোগ করেছেন পরকীয়ায় ধরা পড়ে।

ওই ব্যক্তি এ আইনের খসড়া করতে সহায়তা দেন আচেহ ওলামা কাউন্সিলকে (এমপিইউ)। তার নাম মুখলিস বিন মোহাম্মদ।

বৃহস্পতিবার তাকে ২৮ বার বেত্রাঘাত করা হয়। তার সঙ্গে ‘সম্পর্কিত’ নারীকে ২৩ বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, শরিয়া আইন চালুর পর সেখানে এই প্রথমবার কোনো মুফতি প্রকাশ্যে বেত্রাঘাতের শাস্তি পেলেন।

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে ২০০৫ সাল থেকে চালু রয়েছে শরিয়া আইন। বিয়েবহির্ভূত সম্পর্কের পাশাপাশি সমকামিতা ও জুয়ার শাস্তিও সেখানে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত। সরকারকে এই আইন কার্যকর করতে পরামর্শ এবং আইনি খসড়া করতে সহায়তা দেয় এমপিইউ।  

বেত্রাঘাতের শাস্তি পাওয়া ৪৬ বছরের মুখলিস বিন মোহাম্মদ সেই এমপিইউ-এর একজন ইসলামি মুফতি। তিনি আচেহ প্রদেশের বেসার জেলায় থাকেন। 

সেপ্টেম্বর মাসে এক বিবাহিত নারীসহ তাকে একটি পর্যটন উপকূলের পার্ক করা গাড়ি থেকে আটক করে কর্মকর্তারা।  
বৃহস্পতিবার তাদের বেত্রাঘাত করা হয়। 

বেসারের ডেপুটি মেয়র হুসাইনি ওয়াহাব বলেন, ‘এটা আল্লাহর আইন। কেউ দোষী প্রমাণিত হলে তাকে বেত্রাঘাত করতে হবে, সে ওলামা কাউন্সিলের সদস্য হলেও’। 

তিনি জানান, মুখলিসকে এমপিইউ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।