শাওমির ১০৮ মেগাপিক্সেলের ছবি কেমন?|179100|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৭ নভেম্বর, ২০১৯ ০৯:২১
শাওমির ১০৮ মেগাপিক্সেলের ছবি কেমন?
অনলাইন ডেস্ক

শাওমির ১০৮ মেগাপিক্সেলের ছবি কেমন?

চীনা কোম্পানি শাওমি ১০৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা তাদের দেশের বাজারে ছেড়েছে। কোনো জনপ্রিয় স্মার্টফোনে এত হাই রেজ্যুলেশনের ক্যামেরা এই প্রথম।

শাওমির স্মার্টফোনে যুক্ত এই ক্যামেরার সেন্সর প্রস্তুত করেছে স্যামসাং। এরকম সেন্সর স্যামসাং এখনো পর্যন্ত তাদের নিজেদের তৈরি করা স্মার্টফোনেও ব্যবহার করেনি।

বিবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ক্যামেরায় তোলা ছবিতে ডিজিটাল বিকৃতি অনেক বেশি। এর চেয়ে অনেক কম রেজ্যুলেশনের ক্যামেরায় তোলা ছবির ডিজিটাল বিকৃতিও এত বেশি নয়।

এমআইসিসি নাইন-প্রো-প্রিমিয়াম ফোনটি আপাতত চীনের বাজারেই থাকছে। সেখানে এই ফোনটির প্রাথমিক মূল্য রাখা হয়েছে ২ হাজার ৭৯৯ ইউয়ান (৪০০ মার্কিন ডলার)। শাওমি জানিয়েছে তারা একই প্রযুক্তি এমআই-নোট-টেন'এ ব্যবহার করবে।

ছোট একটি স্মার্টফোনের মধ্যে এরকম অতি উচ্চমাত্রার রেজ্যুলেশনের সেন্সর বসানোর একটা বিপদ আছে। যখন একটি পিক্সেলের খুব কাছে আরেকটি পিক্সেল বসানো হয়, তাদের একটির বৈদ্যুতিক সংকেত আরেকটির ওপর গিয়ে পড়ে। এটিকে বলা হয় ক্রসটক। এতে করে ক্যামেরায় তোলা ছবিতে বিকৃতি অনেক বেশি ঘটে।

স্মার্টফোনের ক্যামেরায় যখন এরকম সেন্সর লাগানা হয়, তখন প্রতিটি পিক্সেলকে স্বাভাবিক আকারের চেয়ে ছোট হতে হয়, যাতে করে সব পিক্সেলের জায়গা হয়। এতে পিক্সেলগুলো যথেষ্ট আলো পায় না। ফলে এই ক্যামেরায় স্বল্প আলোতে ছবি তোলা নিয়ে সমস্যা হয়।

শাওমির নতুন ফোনে লাগানো স্যামসাংয়ের আইসোসেল প্লাস সেন্সর এসব সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পেরেছে।

এই ফোনটি বাজারে আসার আগেই সেটি পরীক্ষা করে দেখার সুযোগ পেয়েছিল রিভিউ ওয়েবসাইট ডিএক্সও মার্ক। তারা এই ফোনটির কিছু দুর্বলতার কথা উল্লেখ করছে।

প্রথমত, এটি দিয়ে তোলা ছবির মান অন্য খুবই উঁচু মানের ক্যামেরায় তোলা ছবির চেয়ে খারাপ।

এই ফোন দিয়ে খুব উজ্জ্বল আলো বা ছায়াময় স্থানে ছবি তুললে সেটার মানও অত ভালো হয় না।

আরেকটি সমস্যা হচ্ছে ১০৮ মেগাপিক্সেলে ছবি তুললে তা ফোনের মেমোরির অনেক বেশি জায়গা দখল করবে। আর এরকম ছবি এডিটের ক্ষেত্রেও প্রসেসরের শক্তিক্ষয় বেশি হবে।

তবে এই ফোনে টেলিফোটো পোর্ট্রেট, ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ল্যান্ডস্কেপ ও ম্যাক্রো ক্লোজ আপ শটের জন্য কম রেজ্যুলেশনের আলাদা সেন্সর আছে।

বেশি পিক্সেল মানে মূলত তুলনামূলক বড় ছবি। আর ছবি বড় হলেই আপনি বেশি দেখতে পাবেন (অধিকাংশ ক্ষেত্রে), সেটাই স্বাভাবিক। ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ছবি ৯২১৬X৬৯১২ রেজ্যুলেশনের ছবি তুলতে পারে। যেটি ১২ মেগাপিক্সেলের থেকে অনেক বড়।

মেগাপিক্সেল বেশি হলেই ছবির কোয়ালিটি ভালো হয় না। মেগাপিক্সেল কোয়ালিটিকে ধারণ করে না, এটি মূলত সাইজকে বোঝায়। তাই আপনি যদি বিলবোর্ডের জন্য ছবি প্রিন্ট করাতে চান, তাহলে বেশি মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা দরকার হবে।