সিলেটকে প্রথম স্তরে তুললেন রুয়েল |181188|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০
সিলেটকে প্রথম স্তরে তুললেন রুয়েল
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সিলেটকে প্রথম স্তরে তুললেন রুয়েল

তরুণ বাঁ-হাতি পেসার রুয়েল মিয়ার দুর্দান্ত বোলিংয়ে দু’দিনেই চট্টগ্রামের বিপক্ষে ম্যাচ জিতল সিলেট। এই জয়ে দ্বিতীয় স্তরের চ্যাম্পিয়ন হলো তারা। ফলে আগামী মৌসুমে তারা প্রথম স্তরে খেলবে। প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তার আগুনে বোলিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৬৫ রানে গুটিয়ে যায় চট্টগ্রাম। ১৩ উইকেট ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে কোনো পেসারের ম্যাচসেরা বোলিং।

বগুড়ায় ৫ উইকেটে ১৮৬ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল চট্টগ্রাম। বাকি ৫ উইকেট ৪৪ রানেই হারিয়ে ফেলে তারা। ১৫.১ ওভারে ৩৯ রানে ৫ উইকেট নেন রুয়েল। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৬৫ রান খরচায় পেয়েছেন ১৩ উইকেট। এর আগে পেসারদের মধ্যে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড ছিল আল আমিন হোসেনের। ৮৯ রানে ১২ উইকেট নিয়েছিলেন খুলনার এই পেসার, ২০১১ সালে। প্রতিপক্ষ ছিল এই চট্টগ্রামই। জাতীয় লিগে রুয়েলের চেয়ে ভালো বোলিংয়ের রেকর্ডটি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাকের। ২০১১ সালে বরিশালের বিপক্ষে ম্যাচে ১৯৩ রান খরচায় ১৫ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

বরিশালে ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে দ্বিতীয় স্তরের আরেক ম্যাচে ৬ উইকেটে ৩৮৬ রানে দিন শুরু করেছিল স্বাগতিকরা। ৪১৪ তে অলআউট হয় তারা। সালমান হোসেন ৭২ ও মইন খান ৭৫ রান করেন। তাসকিন আহমেদ নেন ৪ উইকেট। জবাব দিতে দ্বিতীয় দিন শেষে ঢাকা তুলেছে ২ উইকেটে ২২৫। ৯০ রানে অপরাজিত শামসুর রহমান শুভ ও ৮৫ রানে  অপরাজিত আছেন অধিনায়ক মার্শাল আইয়ুব।

প্রথম স্তরের ম্যাচে খুলনায় ঢাকা বিভাগের করা ২৭৯ রানের ভালোই জবাব দিচ্ছে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় দিন শেষে করেছে ৩ উইকেটে ২৫২ রান। অভিজ্ঞ তুষার ইমরান ৭৫ এবং অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ৫৬ রানে অপরাজিত। তার আগে এনামুল হক বিজয় করেন ৫০ রান। দ্বিতীয় দিনের শুরুতে শুভাগত হোম ৬০ রান করে ফিরলে এরপর আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি ঢাকার হয়ে। খুলনার আব্দুল হালিম ৫ এবং জিয়াউর রহমান নেন ৪ উইকেট।

এই স্তরের অপর ম্যাচে রাজশাহীতে ৮ উইকেটে ২৬৩ রান নিয়ে খেলতে নেমে রংপুর বিভাগ অলআউট হয় ২৭৪ রানে। দেলোয়ার হোসেন নেন ৪ উইকেট। জবাব দিতে নেমে দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ উইকেটে ২২৪ রান রাজশাহী বিভাগ। অভিষেক মিত্র ৬৭ এবং ফরহাদ হোসেন করেন ৭৫ রান। সাব্বির রহমান ২২ রানে অপরাজিত আছেন। দ্বিতীয় দিন শেষে হাতে ৫ উইকেটে নিয়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ৫০ রানে পিছিয়ে।