জাতীয় পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ বাড়ল|182174|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০
জাতীয় পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ বাড়ল
নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতীয় পুরস্কারের  অর্থের পরিমাণ বাড়ল

রাষ্ট্রীয় বা জাতীয় পুরস্কারের অর্থের পরিমাণ প্রায় দ্বিগুণ বাড়ানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সংশোধিত ‘জাতীয় পুরস্কার/পদক-সংক্রান্ত নির্দেশাবলি’ প্রকাশ করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

স্বাধীনতা পুরস্কার, একুশে পদক, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার, বেগম রোকেয়া পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারÑ জাতীয় পুরস্কার হিসেবে বিবেচিত। এর আগে ২০১৭ সালের ১৫ মে এ সংক্রান্ত নির্দেশাবলি সংশোধন করে অর্থের পরিমাণ বাড়িয়েছিল সরকার। 

বেসামরিক সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার স্বাধীনতা পদকের ক্ষেত্রে পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে আগে স্বর্ণের পদকের সঙ্গে ৩ লাখ টাকা দেওয়া হতো। আগামী বছর থেকে দেওয়া হবে ৫ লাখ টাকা। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে দেওয়া এ পদকে আগের মতোই থাকছে ১৮ ক্যারেট মানের ৫০ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা ও একটি সম্মাননাপত্র।

একুশে পদকের ক্ষেত্রে ১৮ ক্যারেট মানের ৫০ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা ও একটি সম্মাননাপত্রের সঙ্গে ২ লাখ টাকা দেওয়া হতো। অর্থের পরিমাণ ২ লাখ বাড়িয়ে ৪ লাখ টাকা করা হয়েছে। বেগম রোকেয়া পদকের ক্ষেত্রে অর্থ ছিল ২ লাখ টাকা। এখন তা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ টাকা।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ক্ষেত্রে ১৮ ক্যারেট মানের ১৫ গ্রাম স্বর্ণের একটি পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা, একটি সম্মাননাপত্র দেওয়া হয়। একই সঙ্গে থাকা অর্থের পরিমাণ দ্বিগুণ বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে আজীবন সম্মাননাপ্রাপ্ত ব্যক্তি ৩ লাখ টাকা পাবেন। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালক, শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রযোজককে ২ লাখ টাকা করে দেওয়া হবে। অন্যান্য ক্ষেত্রে ১ লাখ টাকা করে দেওয়া হবে।

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের ক্ষেত্রে ৫০ হাজার টাকার বদলে এখন দেওয়া হবে ১ লাখ টাকা করে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ‘বঙ্গবন্ধু কৃষি পুরস্কার ট্রাস্ট আইন’ অনুযায়ী নির্ধারিত হবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে।প