শেরপুরে পিএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ|182844|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৩৯
শেরপুরে পিএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ
শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরে পিএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের এক পিএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে রিকশাচালক হাবিবুল্লাহর বিরুদ্ধে। রবিবার পিএসসি পরীক্ষা শেষে হাবিবুল্লাহর রিকশা দিয়ে বেড়ানোর কথা বলে পাহাড়ে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন।

সোমবার সকালে পুলিশ ঘটনাটি জানতে পেরে ধর্ষণের শিকার ওই শিশুকে শেরপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করেছে। তবে এ ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত হাবিবুল্লাহ।

ভিকটিমের মা জানান, নালিতাবাড়ী উপজেলার শিমুলতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী তার মেয়েকে সদ্য অনুষ্ঠিত ‘প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা’ কেন্দ্রে পরীক্ষা চলা পর্যন্ত আনা-নেওয়ার জন্য প্রতিবেশী ব্যাটারিচালিত রিকশাচালক হাবিবুল্লাহকে চুক্তি দেওয়া হয়।

চুক্তি অনুযায়ী হাবিবুল্লাহ প্রতিদিন মেয়েটিকে ‘বাঘবেড়’ পরীক্ষা কেন্দ্রে আনা-নেওয়ার কাজ করে। রবিবার ছিল শেষ পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষ হলে রিকশাচালক হাবিবুল্লাহ শিশুটিকে পাহাড় দেখানোর কথা বলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে জোর করে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে এবং কাউকে না বলার জন্য ভয়-ভীতি দেখায়।

বাড়ি ফিরে মেয়েটি অস্বাভাবিক আচরণ করায় সন্দেহ হয় তার মায়ের। পরে কারণ জানতে চাইলে সন্ধ্যায় সে সব খুলে বলে। সোমবার সকালে পুলিশ ঘটনাটি জানতে পেরে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে ওই শিশুকে শেরপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করেন।

নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক হানিফ আহমেদ তৌফিক বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে মেয়েটিকে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী শেরপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করেছি। যেখানে ভিকটিমের চিকিৎসাসহ যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহম্মেদ বাদল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।