মহেশপুর সীমান্তে আরও ১৪ অনুপ্রবেশকারী|185191|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০
মহেশপুর সীমান্তে আরও ১৪ অনুপ্রবেশকারী
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

মহেশপুর সীমান্তে আরও ১৪ অনুপ্রবেশকারী

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্তে ভারত থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের সময় আটক হয়েছে আরও ১৪ নারী-পুরুষ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে সীমান্তের জলুলী ও পলিয়ানপুর পয়েন্ট দিয়ে বাংলাদেশে ঢোকার সময় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) টহল দলের

সদস্যরা তাদের আটক করে। এ সময় অনুপ্রবেশে সহায়তার অভিযোগে আটক করা হয় দুই দালালকে। তাদের সবাইকে মহেশপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঝিনাইদহের খালিশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল কামরুল আহসান দেশ রূপান্তরকে জানান, গতকাল সকালে বিজিবির জলুলী বিওপির অধীন মাটিলা মাঠ থেকে চারজন পুরুষ, তিন নারী ও এক দালালকে আটক করা হয়। অন্যদিকে বিজিবির পলিয়ানপুর বিওপির অধীন ভৈরবা মোড় থেকে পাঁচজন পুরুষ, দুই নারী ও এক দালালকে আটক করা হয়।

আটক প্রত্যেকেই নিজেদের বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে দাবি করেছেন বলেও জানান বিজিবি কর্মকর্তা কামরুল আহসান।

মহেশপুর থানার পরিদর্শক এস এম আমানউল্লা দেশ রূপান্তরকে জানান, আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তার থানায় একটি মামলা হয়েছে। তাদের সবাইকে গতকালই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। এ নিয়ে ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশের সময় মোট ২৭০ জনকে আটক করল বিজিবি। সম্প্রতি ভারত থেকে নানাভাবে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা বেড়েছে। দেশটির আসামে গত ৩১ আগস্ট নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) প্রকাশের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে ঝিনাইদহ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়ার সীমান্ত দিয়ে মাঝেমধ্যেই দুয়েকটি পরিবার দালালদের মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে সীমান্ত পার হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে গত নভেম্বর মাসের শুরু থেকে এই অনুপ্রবেশের সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে বলে সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা দেশ রূপান্তরকে জানিয়েছেন।