খালিয়াজুড়িতে অপ্রতিরোধ্য মাতৃমৃত্যু |195006|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০
খালিয়াজুড়িতে অপ্রতিরোধ্য মাতৃমৃত্যু
কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন, নেত্রকোনা

খালিয়াজুড়িতে অপ্রতিরোধ্য মাতৃমৃত্যু

নেত্রকোনার খালিয়াজুড়িতে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে প্রসবজনিত মৃত্যু। চিকিৎসক সংকটের পাশাপাশি রয়েছে অসচেতনতা। জেলার দুর্গম জনপদের নাম খালিয়াজুড়ি। যেখানে চলে না রিকশা-ভ্যানগাড়ি।

হাওর উপজেলার মধ্যে দ্বীপ উপজেলা। ৩১ শয্যাবিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটিতে চিকিৎসক সংকটের পাশাপশি সরঞ্জামাদি সংকটও রয়েছে। এরই মধ্যে গত বুধবার ভোর থেকে প্রসব জটিলতায় বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তিন মা ও শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তারা হচ্ছেন সদরের ছোটহাটি গ্রামের হৃদয় মিয়ার স্ত্রী মাহিনূর আক্তার (১৬) ও তার সন্তান এবং তাদের পাশের কুড়িয়াহাটি গ্রামের কোহিনূর আক্তারের নবজাতক।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ উপজেলায় প্রসবকালীন সময়ে মাত্র ২০ শতাংশ মা নিচ্ছেন প্রাতিষ্ঠানিক সেবা ও ৫০ শতাংশ মা নিচ্ছেন দক্ষ ধাত্রীর সহায়তা। অন্য মায়েরা নিজ বাড়িতেই অদক্ষ ধাত্রী দিয়েই করাচ্ছেন প্রসব। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরিপ অনুযায়ী, উপজেলায় মাতৃমৃত্যুর হার লাখে ৩০০ জন। আর শিশুমৃত্যুর হার হাজারে ১২ জন বলে জানান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। স্থানীয়রা বলছেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দেখানো জরিপের চেয়ে বাস্তবে তা আরও অনেক বেশি।

এসব মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. একেএম আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, একমাত্র সরকারি এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে একটি অত্যাধুনিক অপারেশন থিয়েটার থাকলেও বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির অভাবে তাদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া সম্ভব হয় না।