ইবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের সম্পাদকের পক্ষে মায়ের মামলা|195488|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ১০:৩৪
ইবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের সম্পাদকের পক্ষে মায়ের মামলা
ইবি প্রতিনিধি

ইবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের সম্পাদকের পক্ষে মায়ের মামলা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবের পক্ষে মামলা করেছেন তার মা রাশিদা খাতুন।

রবিবার কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি (দ্বিতীয়) আদালতে বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন তিনি।

মামলায় পদবঞ্চিত গ্রুপের নেতা শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাতকে প্রধান আসামি করা হয়েছে।

সাবেক ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান লালনকে ২নং আসামি করা হয়েছে। এ ছাড়া সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির ইসলাম বাবু, ছাত্রলীগ নেতা আল আমিন, তৌকির মাহফুজ মাসুদসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। একই সঙ্গে এ ঘটনায় জড়িত অজ্ঞাত ১৫-২০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘রাকিব মাস্টার্সের থিসিস পেপার জমা দেয়ার জন্য ২১ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন। এ সময় তাকে দেখতে পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে আসামিরাসহ অজ্ঞাত ১৫-২০ জন অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে তার ওপর হামলা করে।

এতে রাকিব মারাত্মকভাবে আহত হলে সাক্ষীরা তাকে চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

প্রসঙ্গত, ২১ জানুয়ারি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক গ্রুপের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে পদবঞ্চিত গ্রুপের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে সম্পাদকসহ উভয় গ্রুপের ৩০ নেতাকর্মী আহত হন।

ওই দিনই পদবঞ্চিত গ্রুপের কর্মী আইন বিভাগের ২০১৭-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হানিফ হোসাইন সম্পাদক রাকিবকে ১নং আসামি করে ইবি থানায় মামলা করেন।

ওই মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ২৫-৩০ জনকে আসামি করা হয়। এ মামলায় সম্পাদক রাকিব আটক রয়েছেন।