চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে ভাইরাসে আক্রান্ত জার্মানি ও জাপানের দুই ব্যক্তি|195782|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:০৭
চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে ভাইরাসে আক্রান্ত জার্মানি ও জাপানের দুই ব্যক্তি
অনলাইন ডেস্ক

চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে ভাইরাসে আক্রান্ত জার্মানি ও জাপানের দুই ব্যক্তি

চীনে না গিয়েও জাপান ও জার্মানির দুই নাগরিক আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে। নিজের দেশেই চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে এসে নতুন ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন তারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্ট জানায়, ৬০ বছর বয়সী আক্রান্ত জাপানি নাগরিক একজন বাস ড্রাইভার। নারা শহরে চীনের দুইটি পর্যটক দল তার গাড়িতে করে ভ্রমণ করেন। চলতি মাসের শুরুতে উহান শহর থেকে জাপানে আসে ওই পর্যটক দল দুটি।

চীনের উহান শহর থেকেই প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসটির উৎপত্তি। হুবেই প্রদেশের রাজধানী শহরটিকে গোটা চীন থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকটি শহরেও ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

জার্মানির ৪০ বছর বয়সী এক ব্যক্তিও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন চীনা নাগরিকের সংস্পর্শে এসে। ধারণা করা হচ্ছে, কর্মস্থলে চীনা সহকর্মী থেকে এই ভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছে তার দেহে।

প্রসঙ্গত, চীনের রহস্যময় করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১০৬ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজারের বেশি মানুষ।

ইতিমধ্যে ১৪টি দেশে ভাইরাসটির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও ইউরোপেও ঢুকে পড়েছে এই ভাইরাস। ফ্রান্সে তিনজন আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। এ ছাড়া থাইল্যান্ড, হংকং, জাপান, ভিয়েতনাম, তাইওয়ান, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, নেপাল ও মিয়ানমারে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে।

করোনাভাইরাস শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত সংক্রমণ। এই রোগের কোনো প্রতিষেধক এবং ভ্যাকসিন নেই। মৃতদের অধিকাংশই বয়স্ক যাদের আগে থেকেই শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত জটিলতা ছিল।