টেস্টের আগে বিসিএল অভিজ্ঞতা চান সৌম্য|195982|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩০ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০
টেস্টের আগে বিসিএল অভিজ্ঞতা চান সৌম্য
ক্রীড়া প্রতিবেদক

টেস্টের আগে বিসিএল অভিজ্ঞতা চান সৌম্য

রাওয়ালপিন্ডিতে বাংলাদেশের টেস্টটা শুরু ৭ ফেব্রুয়ারি। তার আগে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে দেশের একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল)। জাতীয় দলের ওপেনার সৌম্য সরকারের বিশ্বাস, টানা সাদা বল খেলার অভ্যাস থেকে লাল বলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নামার আগে অন্তত একটি চার দিনের বিসিএল ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও টেস্ট খেলোয়াড়দের উপকারে আসবে।

দল গড়ার পর দুদিন অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছে সবাই। তারপরই তো খেলা শুরু। সৌম্য গতকাল মিরপুরে অনুশীলনের পর বলছিলেন, ‘অনুশীলন করে গেলে তো অবশ্যই ভালো হয়। যেহেতু জাতীয় দলের সবাই পাকিস্তানে যাবে, তার আগে যেন সবাই একটা ম্যাচ খেলে। ম্যাচ অনুশীলনে অন্যরকম একটা ব্যাপার থাকে। সবাই যদি দুটি দিন অনুশীলনের চেয়ে মানসিকভাবে একটু বেশি চিন্তা করে লাল বল নিয়ে তাহলে মনে হয় কাজ হবে।’

নিজে টেস্ট দলে নেই। কিন্তু সৌম্যও তো একেবারে ছোট ফরম্যাট থেকে বড় সংস্করণে পা রাখছেন। তার বিশ্বাস, ‘এতদিন সবাই টি-টোয়েন্টি পর্যায়ে ছিল। সেখান থেকে যখন লাল বলের ম্যাচ খেললে একটা অনুভব আসবে।’

খুব চমৎকার ব্যাটসম্যান হলেও সৌম্য নিজে জাতীয় দলের সব সংস্করণে এখন নেই। তবে গেল বছর খানেকের চেষ্টায় নিজেকে শুধু ব্যাটসম্যান থেকে অলরাউন্ডারের পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। এই মাসে শেষ হওয়া বিপিএলে ১২ ম্যাচে মিডিয়াম পেসে ১২ উইকেট নিয়েছেন ৩৩১ রান করার পাশাপাশি।

অলরাউন্ডারের এই ভূমিকা বুঝি অনেকটা নির্ভার করেছে ব্যাটসম্যান সৌম্যকে। ‘অবশ্যই আমার জন্য ভালো হবে।’ নিজের দ্বৈত ভূমিকা নিয়ে সৌম্য বলছিলেন, ‘আগে একদিক নিয়ে চিন্তা করতাম। এখন দুইদিক নিয়ে করি। যেকোনো একদিকে ভালো করলে হয়তোবা একটা দিন শেষ হয়। অনেক সময় আছে যে শুধু ব্যাটিং করলে আর ব্যাটিং খারাপ হয়ে গেলে মনে হয় দিনটা কিছুই হয়নি। তবে এখন সুযোগ বেশি থাকবে।’