কিশোরী ধর্ষণের দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তরা আটক|197893|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:১৮
কিশোরী ধর্ষণের দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তরা আটক
শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

কিশোরী ধর্ষণের দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তরা আটক

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনার অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযান চালিয়ে দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হচ্ছে উপজেলার ভাড়াউড়া চা বাগানের মৃত অনিল দোষাদের ছেলে কৈলাস দোষাদ (২৫) ও একই চা বাগানের মৃত পূজনা মৃধার ছেলে জহর লাল মৃধা (২৯)। অপর অভিযুক্ত টমটম চালককে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আব্দুছ ছালেক শনিবার এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ধর্ষক দুজনকে থানায় নিয়ে আসার পর নির্যাতিতা মেয়েটি ও তার সঙ্গী তাদের শনাক্ত করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ওসি জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টায় বধ্যভূমি সংলগ্ন ভাড়াউড়া চা বাগানে ভেতরে এ ঘটনা ঘটনা ঘটে। ঘটনায় ২ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানার নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। তারা দুজনই ওই চা-বাগানের চৌকিদার।

পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, মেয়েটি পূর্ব পরিচিত একজনকে নিয়ে বধ্যভূমি এলাকায় বেড়াতে যায়। ফেরার পথে এক টমটম চালক তাদের বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে তার টমটমে ওঠায়। এ সময় টমটমে আগে থেকেই অবস্থানরত দুই ধর্ষক তাদের ভাড়াউড়া চা-বাগানের নির্জন স্থানে নিয়ে যায়।

সেখানে ধর্ষকদের একজন মেয়েটির সঙ্গে থাকা কিশোরটিকে রশি দিয়ে বেঁধে টমটমে আটকে রাখে। পরে, রাত সাড়ে দশটার দিকে ধর্ষিতা কিশোরী ও তার সঙ্গের কিশোরকে বধ্যভূমির কাছাকাছি রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে ধর্ষকরা টমটম নিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনা জানার পর মেয়েটির মা রাতেই থানায় যান। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ভাড়াউড়া চা-বাগান থেকে অভিযুক্তদের আটক করে।