এক রাতে গোটা অঞ্চল পুড়ে ছাই: দিল্লি সহিংসতায় ক্ষুব্ধ অনুরাগ কাশ্যপ|201527|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৪:৩৯
এক রাতে গোটা অঞ্চল পুড়ে ছাই: দিল্লি সহিংসতায় ক্ষুব্ধ অনুরাগ কাশ্যপ
অনলাইন ডেস্ক

এক রাতে গোটা অঞ্চল পুড়ে ছাই: দিল্লি সহিংসতায় ক্ষুব্ধ অনুরাগ কাশ্যপ

দিল্লির সাম্প্রদায়িক হামলায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বলিউড নির্মাতা অনুরাগ কাশ্যপ। জাভেদ আখতার, বিশাল ভরদ্বাজের পর টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনুরাগ।

ক্ষুব্ধ বলিউড নির্মাতা বলেন, ‘একটা ঘর বানাতে কত সময় লাগে! একেক জনের সারা জীবন কেটে যায় একটি ঘর বা পরিবার তৈরিতে। সেখানে পোড়াতে লাগে কয়েক মুহূর্ত! এক রাতে গোটা অঞ্চল পুড়ে ছাই।’

দিল্লির বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে অনুরাগ টুইটে আরও লিখেন, ‘হতাশা ছিল, আছে, থাকবে। তার জন্য সংযম বিসর্জন দিতে হবে! দেশ পুড়ছে। যন্ত্রণা তো থাকবেই। তা বলে দেশবাসী সংযত হবেন না! এখনও যদি সংযত না হই আমরা, দেশের কী অবস্থা হবে! এখন সবার উচিত রাগ-হিংসা, ক্ষোভ ভুলে একত্রিত হয়ে এই হিংসার মোকাবিলা করা। না হলে দেশ শেষ হয়ে যাবে।’

কয়েক দশকের মধ্যে দিল্লির নজিরবিহীন এই সাম্প্রদায়িক হামলায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত দুই শতাধিক। আহতদের মধ্যে প্রায় ৭০ জন গুলিবিদ্ধ।

দিল্লির সহিংসতার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। নিহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

বুধবার রাতে নতুন করে নিহতের খবর না এলেও উত্তর-পূর্ব দিল্লি থমথমে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ‘হিন্দুয়োঁ কা হিন্দুস্তান’, ‘জয় শ্রীরাম’- এসব স্লোগান দিয়ে সংখ্যালঘু মুসলিমদের বাড়িঘর, দোকানপাট ও মসজিদে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

বিবিসি বাংলা জানায়, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক আছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দাঙ্গাকারীদের সঙ্গে পুলিশ দাঁড়িয়ে আছে দেখা যায়। কোথাও আবার নিজ হাতে সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙেছে পুলিশ।