স্বাধীনতা দিবসে ফাঁকা জাতীয় স্মৃতিসৌধ|206821|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ মার্চ, ২০২০ ১১:৩৯
স্বাধীনতা দিবসে ফাঁকা জাতীয় স্মৃতিসৌধ
ওমর ফারুক,সাভার

স্বাধীনতা দিবসে ফাঁকা জাতীয় স্মৃতিসৌধ

আজ ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।দিবসটি উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ ধুয়ে-মুছে ও রং-তুলি দিয়ে করা হয় প্রস্তুত।

তবে করোনাভাইরাস সতর্কতার জন্য রাষ্ট্রীয় সকল আনুষ্ঠানিকতা স্থগিত করায় শহীদদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারেনি কেউ।

এবারই বাংলাদেশের ইতিহাসে ৪৯ বছরে প্রথম বারের মতো শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা বন্ধ রয়েছে।

প্রতি বছর স্বাধীনতা দিবসে রাষ্ট্রীয় আনুষ্ঠানিকতা শুরু হতো সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে।

দিবসটি উপলক্ষে কুয়াশাভেজা সকালে প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতেন সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে। এরপরই শ্রদ্ধা জানাতে ঢল নামতো সাধারণ মানুষের।

তবে বৈরী পরিস্থিতির কারণে এবারের চিত্রটা ভিন্ন। নেই লাখো মানুষের উপস্থিতি, নেই কোনো আনুষ্ঠানিকতা। করোনাভাইরাসের কারণে আগেই জনগণের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা বিবেচনা করে বাতিল করা হয় রাষ্ট্রের সকল কর্মসূচি।

এদিকে মহান স্বাধনীতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সকালে সাভার উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান।

এ সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, ‘করোনাভাইরাস রোধে বর্তমান সরকার নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। দেশের কোনো মানুষ না খেয়ে থাকবে না। ইতিমধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেশের সকল অসহায় ও দুস্থদের মাঝে চালসহ নগদ টাকা বিতরণ করা হচ্ছে।’

পরে প্রতিমন্ত্রী করোনাভাইরাস রোধে সাভারের থানা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পানি দিয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

মন্ত্রীর সঙ্গে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজুর রহমান জুমন, আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন মাদবর,সাভার মডেল থানার ওসি এ এফ এম সায়েদসহ অনেকে।