উভয়সংকটে সুয়ারেজ|247360|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০
উভয়সংকটে সুয়ারেজ
ক্রীড়া ডেস্ক

উভয়সংকটে সুয়ারেজ

বার্সেলোনার সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তি শেষ করেছেন লুইস সুয়ারেজ। এক বছর বাকি থাকতে ক্লাব ছাড়লেও ফ্রিতেই বার্সেলোনা ছাড়তে রাজি হয়েছেন এই উরুগুইয়ান। তিনি এখন ফ্রি-এজেন্ট।

তবে কোথায় যাবেন এই স্ট্রাইকার তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। আর্তুরো ভিদাল ইতিমধ্যেই নতুন ঠিকানা খুঁজে নিয়েছেন ইন্তার মিলানে। সিরি আ’র আরেক জায়ান্ট জুভেন্তাসে সুয়ারেজের যাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছিল অনেক আগে থেকেই। কিন্তু কোচ আন্দ্রেয়া পিরলো কয়েক দিন আগে সংশয়ের কথা জানিয়েছিলেন সুয়ারেজের তুরিনে আসা নিয়ে।

এখন শোনা যাচ্ছে অন্য ঝামেলা। সুয়ারেজের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তদন্ত করছে ইতালীয় পুলিশ। ইতালিয়ান নিয়ম অনুযায়ী এক মৌসুমে দুজনের বেশি অ-ইউরোপীয় খেলোয়াড় নেওয়া যায় না। সেই কোটা পূরণ হয়ে যাওয়ায় ইতালিয়ান পাসপোর্ট নিয়েই জুভেন্তাসে যেতে হতো সুয়ারেজকে। সে জন্য ‘বি ওয়ান’ পরীক্ষা দিতে হয় তাকে। ১৭ আগস্ট পেরুজা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে মাত্র আধাঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষা শেষ করে এসেছিলেন তিনি। ভালোভাবেই নাকি পাস করেছিলেন।

কিন্তু ইতালীয় সংবাদমাধ্যম খবর দিচ্ছে, পরীক্ষার প্রশ্ন কী হবে, কী ফল হবে, সেটা আগেই নির্ধারণ করে রাখা হয়েছিল। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রয়োজনীয় নথি সংগ্রহ করছে। এর মাধ্যমে গোপনীয় তথ্য ফাঁস করার মতো অপরাধের অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করছে পুলিশ।

এদিকে সুয়ারেজকে নিয়ে আতলেতিকো মাদ্রিদ আগ্রহ দেখালেও তাকে লা লিগার প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাবে যেতে নাকি বাধা দিতে পারেন বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ। সুয়ারেজের সঙ্গে বার্সেলোনার একটা সম্মতিপত্র রয়েছে, যেখানে বলা আছে, সুয়ারেজ ক্লাব ছাড়লে কয়েকটা ইউরোপীয় ক্লাবে যোগ দিতে পারবেন না। তবে এই সম্মতিপত্রে আতলেতিকোর নাম নেই। কিন্তু বার্তোমেউ এখন আতলেতিকোর নামও ঢুকিয়ে দিতে চাইছেন সেই তালিকায়। বার্তোমেউর সুবিধা হলো, চুক্তিপত্রে কোনো পক্ষেরই সই নেই। শুধু খসড়া করা আছে। আর এটারই সুবিধা নিতে চাইছেন বার্তোমেউ।