পটুয়াখালীতে নারীকে হাত পা বেঁধে নির্যাতন, ধর্ষণ|252748|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৮ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০
পটুয়াখালীতে নারীকে হাত পা বেঁধে নির্যাতন, ধর্ষণ
রূপান্তর ডেস্ক

পটুয়াখালীতে নারীকে হাত পা বেঁধে নির্যাতন, ধর্ষণ

বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের মধ্যেও শিশুর প্রতি সহিংসতা, ধর্ষণ ও নির্যাতন চলছে। ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ-ের আইন হওয়ার পরও কমেনি ধর্ষণ-নির্যাতন। গত শুক্রবার রাতেও পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে দুই সন্তানের মা এক নারীকে (৩০) হাত-পা বেঁধে নির্যাতন ও ধর্ষণের খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে দেশের পাঁচ জেলায় ৫ শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে দুই শিশুকে ধর্ষণ এবং তিন শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। কিশোরগঞ্জে ৩ বছরের এক শিশু ও জামালপুরে ৯ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ছাড়া পটুয়াখালীতে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা, রাজবাড়ীতে শিশুকে নিপীড়ন ও ফেনীতে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। অন্যদিকে দেশের তিন জেলায় কিশোরীসহ ৩ নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গত শুক্রবার রাতে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে দুই সন্তানের জননী এক নারীকে (৩০) হাত-পা বেঁধে নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের চর মার্গারেট এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শাকিল (২০) নামে এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শাকিল ওই এলাকার মজিবর শরিফের ছেলে। পেশায় তিনি একজন টেইলার্স (দর্জি)।

নির্যাতিতার স্বামী জানান, ঘটনার সময় তিনি বাড়ির বাইরে ছিলেন। রাত ৯টার দিকে মোবাইলফোনে খবর পেয়ে বাড়িতে ফেরেন তিনি। এ সময় ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ ছিল না। পরে টর্চলাইট জ্বালিয়ে তার স্ত্রীকে টেবিলের সঙ্গে চোখ-মুখ বাঁধা অবস্থায় দেখতে পান। পরে তার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। এর মধ্যে তার স্ত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় বোরকা পরিহিত তিনজন জড়িত ছিল উল্লেখ করে তিনি দাবি করেন, তার স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনসহ ধর্ষণ করা হয়। ঘটনার সময় দেড় লক্ষাধিক টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নেয় দুর্বৃত্তরা। 

রাঙ্গাবালী থানার ওসি মো. আলী আহম্মেদ জানান, ওই নারীর বক্তব্য অনুযায়ী তাকে মারধর ও ধর্ষণ করা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে পটুয়াখালী জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশফাকুর রহমান বলেন, ভুক্তভোগীর স্বামীর সঙ্গে কথা বলেছি। ঘটনায় জড়িত তিনজনের নাম বলেছেন তিনি। এ ঘটনায় শাকিল নামে একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।   

পাঁচ জেলায় ৫ শিশু ধর্ষণের শিকার : দেশের পাঁচ জেলায় ৫ শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে দুই শিশুকে ধর্ষণ এবং তিন শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার খবর পাওয়া গেছে।

গত মঙ্গলবার সকালে জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে নয় বছরের এক শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে পোগলদীঘা ইউনিয়নের বগারপাড় থেকে আরিফ (১৯) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশ। সরিষাবাড়ী থানার ওসি আবু মো. ফজলুল করীম জানান, এ ঘটনায় শিশুটির বাবা আরিফকে আসামি করে একটি মামলা করেন। গতকাল তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

শুক্রবার দুপুরে কিশোরগঞ্জের ইটনায় পুকুরে গোসল শেষে বাড়ি ফেরার পথে সাড়ে তিন বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত কিশোর (১৬) পলাতক রয়েছে। সে ইটনা ওই এলাকার কামাল মিয়ার ছেলে। সম্পর্কে শিশুটির আপন চাচাত ভাই। ইটনা থানার ওসি মোহাম্মদ মুর্শেদ জামান জানান, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারসহ এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের জিরোপয়েন্ট এলাকায় যানজটে আটকা পড়া যাত্রীবাহী একটি বাসে ঘুমন্ত অবস্থায় যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে এক শিশু (১১)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জাহিদ খান (২২) নামে এক যুবককে আটকের পর গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে অন্য যাত্রীরা। গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবী জানান, এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত ১০ অক্টোবর ফেনীর সোনাগাজীতে তৃতীয় শ্রেণি পড়ুয়া এক শিশু ধর্ষণচেষ্টার শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার আব্দুল হক (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে মামলা করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার। মামলায় অভিযুক্ত বৃদ্ধকে সহযোগিতা ও ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগে নেছার উদ্দিন ও বাবলু নামে স্থানীয় দুই আওয়ামী লীগ নেতাকেও আসামি করা হয়েছে। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এ ছাড়া পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় টাকার লোভ দেখিয়ে পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে শনিবার দুপুরে হারুন আকন (৩৫) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত হারুনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে।

তিন জেলায় কিশোরীসহ ৪ নারী ধর্ষণের শিকার : দেশের তিন জেলায় এক কিশোরীসহ তিন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এরমধ্যে গত শুক্রবার বিকেলে সাভারে এক নারী দল বেঁধে ধর্ষণের শিকার হয়েছে। উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়নের সামাইর গ্রামের সিদ্দিকের ভাড়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাজু আলী (৩৫) ও রিয়াজ আলী (২০) নামে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সাভার থানায় একটি মামলা হয়েছে।

গত শুক্রবার রাতে সিলেটের বিশ্বনাথে এক কিশোরী (১৮) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হলে গতকাল শনিবার আবদুর রশিদ (৩৫) নামে ভুক্তভোগীর চাচাকে করে পুলিশ। অভিযুক্ত রশিদ সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি গ্রামের প্রয়াত মনফর আলীর ছেলে। বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা জানান, গতকাল তাকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের শিকার এক নারীকে (২৮) উদ্ধার করেছে র‌্যাব। উপজেলার কলাগাছিয়া গ্রামের এক ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। এ সময় ঘটনায় জড়িত তিনজনকে আটক করা হয়। র‌্যাব জানায়, গত মঙ্গলবার ওই নারীকে অপহরণ করে কলাগাছির ওই বাসায় আটকে রেখে দল বেঁধে ধর্ষণ করে আসছিল অভিযুক্তরা। অভিযুক্তদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।