চন্দনাইশে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ কর্মী তৌহিদের মৃত্যু|253740|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২২ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:০৮
চন্দনাইশে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ কর্মী তৌহিদের মৃত্যু
চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চন্দনাইশে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ কর্মী তৌহিদের মৃত্যু

চট্টগ্রামের চন্দনাইশে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ নেতা তৌহিদুল ইসলাম বাহাদুর (২৮) বৃহস্পতিবার সকালে মারা গেছেন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৭ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টার দিকে তৌহিদ ও তার বন্ধু রবিন মোজাফরাবাদ এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়কের পাশে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন।

এ সময় পেছন দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী মোটরসাইকেল তাকে সজোরে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তার ওপর লুটিয়ে পড়েন।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে বিজিসি ট্রাস্ট হসপিটালের নেয়ার পর সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে(চমেক) পাঠানো হয়।

চমেক হাসপাতালে একদিন থাকার পর তাকে ভর্তি করা হয় নগরীর পার্কভিউ হসপিটালে।  সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে বুধবার (২১ অক্টোবর) রাতে পুনরায় তাকে  নিয়ে আসা হয় চমেক হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চমেক হাসপাতালে মারা যান তৌহিদ।

চন্দনাইশের কাঞ্চন নগর বাদামতল এলাকার বাসিন্দা তৌহিদ চট্টগ্রাম সিটি কলেজের অর্থনীতি বিভাগের মাস্টার্স  শেষ বর্ষের ছাত্র  ছিলেন। তিনি ছাত্রলীগের একজন সক্রিয় সদস্য ছিলেন।

তার আপন মামা নজরুল ইসলাম টিটু বলেন, তৌহিদের মা, বাবা দুজনই অনেক আগে মারা যায়। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে সে ছিল সবার ছোট। বড় ভাই এবং ভগ্নিপতিও মারা যায় অনেক আগে। তৌহিদের স্বপ্ন ছিল মাস্টার্স পাস করে একটা চাকরি নিয়ে বিধবা বোন ও বড় ভাইয়ের পরিবারের দায়িত্ব নেওয়ার। কিন্তু তার এ স্বপ্ন পূরণের আগেই সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি নিজেই চির বিদায় নিলেন।

এদিকে, দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পর তৌহিদের চিকিৎসায় সহায়তা দেয়ার জন্য চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরীসহ  স্থানীয় বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক, সামাজিক নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন তার মামা নজরুল ইসলাম।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে জনপ্রিয় ছাত্রলীগ নেতা তৌহিদুলের অকাল মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

তার মৃত্যুতে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ এমপি, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চট্টগ্রাম ১৪ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নজরল ইসলাম চৌধুরী, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু, চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার চৌধুরী, পৌরসভার মেয়র মাহবুবুল আলম খোকা, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম বোরহান উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহের প্রমুখ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।