উদ্যোক্তাদের উৎসাহ দিতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’|260793|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০
সংবাদ সম্মেলনে পলক
উদ্যোক্তাদের উৎসাহ দিতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’
নিজস্ব প্রতিবেদক

উদ্যোক্তাদের উৎসাহ দিতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’

উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকদের উৎসাহিত করতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্টের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’ শুধু মুজিববর্ষেই নয়, বার্ষিক ইভেন্ট হিসেবে প্রতি বছর আয়োজন করা হবে।’ গতকাল বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট-২০২০’-এর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

পলক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশরই নয়, সারা বিশে^র। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন আদর্শকে অনুপ্রাণিত করতে ইনোভেশন গ্র্যান্ট প্ল্যাটফর্মে সারা বিশে^র তরুণ উদ্ভাবকদের জন্য স্বপ্ন পূরণের আকর্ষণীয় প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ে তোলা হবে। বঙ্গবন্ধুর জীবন আদর্শ ও রাজনৈতিক দর্শন বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে। তাহলে তারা কখনো জীবন সংগ্রামে পরাজিত হবে না।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’ এই আইডিয়াটি নিয়ে কাজ শুরু করা হয়েছিল মূলত মুজিববর্ষকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য। বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ, বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন এবং বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দর্শন যা আমাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয় এবং অনুপ্রেরণাদায়ী একটি দৃষ্টান্ত।

বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আগ্রহী তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক উদ্যোক্তারা িি.িনরম.মড়া.নফ এই ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। দেশীয় উদ্যোক্তারা আগামী ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ এবং বিদেশি উদ্যোক্তারা ২৫ জানুয়ারি ২০২১ পর্যন্ত নিবন্ধন করতে পারবেন।