বাড়বে শীত, কিছু স্থানে আজই শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা|270383|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০
বাড়বে শীত, কিছু স্থানে আজই শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাড়বে শীত, কিছু স্থানে আজই শৈত্যপ্রবাহের শঙ্কা

পৌষের আর এক দিন বাকি। তবে পৌষের শীতের আমেজ নেই কোথাও। উত্তরাঞ্চলের কিছু এলাকায় রাতে হালকা শীত অনুভূত হলেও রাজধানীসহ দেশের অন্যত্র তার ছিটেফোঁটাও নেই। বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছে এমন অবস্থা।

তবে মাঘের আগমন বার্তার সঙ্গে এবার শৈত্যপ্রবাহেরও আগমন বার্তা দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ইতিমধ্যে গতকাল মঙ্গলবার প্রায় সারা দেশেই দিনের তাপমাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে। বিকেল থেকে হিমেল বাতাসের সঙ্গে কুয়াশার দেখা মিলেছে। অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ সারা দেশেই রাতের তাপমাত্রা কমে যেতে পারে ১-২ ডিগ্রি। সেই সঙ্গে আজই উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অর্থাৎ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দুয়েক জায়গায় শুরু হতে পারে শৈত্যপ্রবাহ। আগামী দু-তিন দিনে এ শৈত্যপ্রবাহ আরও নতুন এলাকায় বিস্তার লাভ করতে পারে। একই সঙ্গে বাড়তে পারে কুয়াশার মাত্রা এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তা দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক গতকাল রাতে দেশ রূপান্তরকে বলেন, আগামীকাল (আজ) থেকেই তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের দু’একটি জায়গায় রাতের তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি বা তার নিচে নেমে বুধবারই (আজ) শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে। পরের দুই দিন আরও এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভ করতে পারে। এ কয়েক দিন দিনের তাপমাত্রাও কিছুটা কমবে। তবে এই শৈত্যপ্রবাহ দুই-তিন দিনের বেশি স্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা কম। আগামী ১৭ তারিখ থেকে আবার তাপমাত্রা বেড়ে যেতে পারে।

অধিদপ্তরের জানুয়ারি মাসের দীর্ঘমেয়াদি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, এ মাসে দেশে ১-২টি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এর মধ্যে একটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে। তখন তাপমাত্রা ৪-৬ ডিগ্রিতে নামতে পারে। তবে আগামী দু-তিন দিনের শৈত্যপ্রবাহ তীব্র মাত্রার শৈত্যপ্রবাহে রূপ নেওয়ার শঙ্কা নেই বলে জানালেন আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক।

গতকাল রাতের তাপমাত্রা তেমনভাবে না কমলেও প্রায় সারা দেশেই দিনের তাপমাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে। রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগে তাপমাত্রা বেশি কমেছে। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে। সেখানে গতকাল দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি ও রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে। সেখানের দিনের তাপমাত্রা রাজধানীর রাতের তাপমাত্রার চেয়ে কম। গতকাল রাজধানীতে রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগের দিন রাজধানীতে দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে কক্সবাজারে ৩০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে নওগাঁর বদলগাছীতে ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আজ সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে যেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা দেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।