মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে আরিচা-কাজিরহাট ফেরি সার্ভিসের উদ্বোধন|279317|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪২
মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে আরিচা-কাজিরহাট ফেরি সার্ভিসের উদ্বোধন
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে আরিচা-কাজিরহাট ফেরি সার্ভিসের উদ্বোধন

দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে যাতায়াতকারী জনসাধারণের জন্য মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে আরিচা-কাজিরহাট ফেরি সার্ভিসের যাত্রা পুনরায় শুরু হলো।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে যাতায়াতকারী জনসাধারণের জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকীতে উপহার স্বরূপ আরিচা-কাজিরহাট ফেরি সার্ভিস এর উদ্বোধন করা হলো।

তিনি শনিবার সকালে আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ফেরি সার্ভিস আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের পর স্থানীয় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী আরও বলেন, মানিকগঞ্জের আরিচা ও পাবনার কাজিরহাট নৌরুট আজ জনগণের দুর্ভোগ লাঘবে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু হলো। শুষ্ক মৌসুমে ফেরি চলাচল শুরু হলেও আমাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে বর্ষা মৌসুমে। নৌ পথ ধরে রাখার জন্য শুষ্ক মৌসুমে কোন সমস্যা হয় না। সমস্যা হয় বর্ষা মৌসুমে। আমাদের বিআইডব্লিউটিএর ড্রেজিং বিভাগ শক্তিশালী থাকায় এ নৌ পথ সচল রাখতে তারা সক্ষম হবে। ভবিষ্যতে চাহিদা অনুযায়ী এ নৌরুটে আরও ফেরি যুক্ত করা হবে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য এ. এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. তাজুল ইসলাম।

বেগম রোকেয়া নামের ফেরিতে নৌ প্রতিমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্টরা কাজিরহাট পরিদর্শনে যান। মতিউর রহমান ফেরিটি ১৫ টি ট্রাক নিয়ে আরিচা থেকে ছেড়ে যায়। আরিচা-কাজিরহাট নৌপথের দূরত্ব ১৪ কিলোমিটার। আরিচা থেকে কাজিরহাট যেতে সময় লাগবে এক ঘণ্টা ৩০মিনিট। বর্তমানে ৪টি ফেরি দিয়ে এই নৌরুট পারাপার করা হবে।

প্রসঙ্গত, ২০০১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি নাব্য সংকটের কারণে আরিচা থেকে ফেরিঘাট পাটুরিয়ায় স্থানান্তর করা হয়।