৩৭১ ইউপিসহ ১১ পৌরসভায় ভোট ১১ এপ্রিল|280191|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৩ মার্চ, ২০২১ ২১:৪৬
৩৭১ ইউপিসহ ১১ পৌরসভায় ভোট ১১ এপ্রিল
নিজস্ব প্রতিবেদক

৩৭১ ইউপিসহ ১১ পৌরসভায় ভোট ১১ এপ্রিল

আগামী ১১ এপ্রিল দেশে স্থানীয় সরকারের প্রথম ধাপে ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপিতে) ও ১১ পৌরসভায় ষষ্ঠ ধাপে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ৭৭তম কমিশন সভা শেষে এ তফসিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

তিনি বলেন, এসব নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৮ মার্চ, মনোনয়পত্র বাছাই ১৯ মার্চ, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২৪ মার্চ। আর ভোটগ্রহণ ১১ এপ্রিল। এর মধ্যে ৩০টি ইউপি ও ১১ টি পৌরসভায় ও লক্ষ্মীপুর – ২ আসনে  ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হবে।  ৩৭১ ইউপিতে ৩০টি ইউনিয়ন পরিষদে ইভিএমে ভোট হবে। বাকিগুলোয় ব্যালট পেপারে হবে। চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হবে দলীয় প্রতীকে। ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ করবেন।

পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রসঙ্গ টেনে ইসি সচিব বলেন, ‘ঝালকাঠি পৌরসভার ক্ষেত্রে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করবেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) , ঝালকাঠি মহেশখালী পৌরসভায় রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করবেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) কক্সবাজার এবং বাকিগুলোতে সংশ্লিস্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। ইতিমধ্যে ইউপি নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছে বিএনপি। দেশের প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ২২ মার্চ থেকে জুনের মধ্যে ছয় ধাপে ইউপি ভোট হয়।

ষষ্ঠ ধাপে যে ১১ পৌরসভায় ভোট:  পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ, দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ , ঝালকাঠির ঝালকাঠি পৌরসভা, ফরিদপুরের ভাঙ্গা, কক্সবাজারের চকরিয়া ও মহেশখালী , ফেনীর সোনাগজী, নোয়াখালীর কবিরহাট ,কুমিল্লার লাঙ্গলকোট, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী, যশোরের নওয়াপাড়া (অভয়নগর) পৌরসভায় ভোট। পূর্বঘোষিত ৩২৩টি ইউপির সঙ্গে নতুন করে অর্ধশত ইউপি যোগ হয়েছে।

রায়পুর এবং সদর উপজেলার কিছু অংশ নিয়ে গঠিত লক্ষ্মীপুর-২ আসনে উপনির্বাচনও হবে ১১ এপ্রিল। এর রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কুমিল্লার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাকে। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ সংসদ নির্বাচনে এই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন কাজি শহিদুল ইসলাম পাপুল। পরে তার স্ত্রী সেলিনা ইসলামকেও সংরক্ষিত আসনে সংসদ সদস্য করিয়ে আনেন।

অর্থ ও মানবপাচার এবং ঘুষ দেওয়ার অভিযোগে গত বছর জুনে কুয়েতে গ্রেপ্তার হন পাপুল। ওই মামলার বিচার শেষে গত ২৮ জানুয়ারি তাকে চার বছরের কারাদণ্ড দেয় কুয়েতের একটি আদালত। সেদিন থেকেই পাপুলের সংসদ সদস্য পদ শূন্য ঘোষণা করে গেজেট জারি করে সংসদ সচিবালয়।

২৮ জানুয়ারি আসনটি শূন্য ঘোষণা করায় পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে সেখানে উপনির্বাচনের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

সারাদেশ স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ না করার ঘোষণার প্রেক্ষিতে ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেছেন, ‘ইলেকশন কমিশনের যে অবস্থান, সবাইকে নিয়ে ইলেকশন করতে চাই।’

বুধবার  নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমকে বলেন, ‘গণতন্ত্রের প্রতি বিশ্বাস দেখিয়ে চরম প্রতিকূল অবস্থাতেও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিএনপি। কিন্তু সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলোতে প্রমাণিত হয়েছে, এই কমিশন কোনো নির্বাচনই নিরপেক্ষ, অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে আয়োজনের যোগ্য নয়। এই সরকার অনির্বাচিত একটি সরকার এবং সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করাই কমিশনের প্রধান কাজ।’