সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজায় মানুষের ঢল|280351|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৪ মার্চ, ২০২১ ১৫:৫৩
সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজায় মানুষের ঢল
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজায় মানুষের ঢল

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা এইচ টি ইমামের প্রথম নামাজের জানাজা সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার পৌর সদরের উল্লাপাড়া সরকারি আকবর আলী কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জানাজায় মানুষের ঢল নামে।

এর আগে এইচ টি ইমামের মরদেহ বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে উল্লাপাড়ার সোনতলা হাইস্কুল মাঠে নামে। সেখান থেকে লাশবাহী গাড়িতে মরদেহ নেওয়া হয় উল্লাপাড়া আকবর আলী কলেজ মাঠে। সেখানে লাশ পৌঁছালে হাজার হাজার মানুষ তার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় চোখের জলে তারা তাকে শেষ বিদায় জানান। এরপর তাকে পুলিশের একটি চৌকস দল রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

জানাজা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মরহুমের ছেলে সিরাজগঞ্জ-৪(উল্লাপাড়া) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম, সিরাজগঞ্জ-৫(চৌহালি-বেলকুচি) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মমিন মন্ডল, সাবেক মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী ও সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট কে. এম হোসেন আলী হাসান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার, সহসভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য, হাজী ইসহাক আলী, উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফয়সাল কাদের রুমী, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, উল্লাপাড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিরুল ইসলাম আরজু, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র এস.এম নজরুল ইসলাম,সিরাজগঞ্জ জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ ইউসুফ জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, উল্লাপাড়া উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম উজ্জল প্রমুখ।

সকাল সাড়ে ১০টায় এইচ টি ইমামের মরদেহ তার নিজ গ্রাম সোনতলায় এসে পৌঁছালে সেখানেও এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

উপস্থিত লোকজন কান্নায় ভেঙে পড়েন। মহান মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করে তার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। তার জানাজায় লক্ষাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

এইচ টি ইমাম ’৭১ এর মহান মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত ছিলেন। তাদের অস্ত্র সংগ্রহ, প্রশিক্ষণ ও বাংলাদেশ থেকে ভারতে পালিয়ে যাওয়া শরণার্থীদের সেখানে সুরক্ষা প্রদানে ব্যাপক ভূমিকা রাখেন।

পরবর্তীতে ভারতের ত্রিপুরায় গিয়ে সেখানে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে ভারত ও আন্তর্জাতিক বিশ্বের তদানীন্তন অস্থায়ী স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের প্রতি সমর্থন আদায়ে কাজ করেন। এরপর স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের তদানীন্তন প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের ডাকে তিনি বাংলাদেশ সরকারের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

এ ছাড়া কলকাতায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনায় অসামান্য অবদান রাখেন। এইচ টি ইমাম ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রশাসন বিষয়ক উপদেষ্টা নিযুক্ত হন।

এরপর ২০১৪ সালে তিনি প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পেয়ে জীবনের শেষদিন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর কাছে থেকে তাকে পরামর্শ প্রদান ও রাষ্ট্র পরিচালনায় অসামান্য অবদান রেখেছেন।

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নিজ উপজেলা উল্লাপাড়ায় সকল দোকানপাট ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে।

এইচ টি ইমাম দু’সপ্তাহ আগে কিডনি ও হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক (সিএমএইচ) হাসপাতালে ভর্তি হন। এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরের মানুষ শোক প্রকাশ করেছেন।