যে ফল খেয়ে করোনা থেকে মুক্ত ৩ গ্রামের বাসিন্দা!|291902|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৮ মে, ২০২১ ২০:১৯
যে ফল খেয়ে করোনা থেকে মুক্ত ৩ গ্রামের বাসিন্দা!
অনলাইন ডেস্ক

যে ফল খেয়ে করোনা থেকে মুক্ত ৩ গ্রামের বাসিন্দা!

করোনা মোকাবিলায় সারা বিশ্ব যখন হিমশিম খাচ্ছে তখন একটি ফল নিয়মিত খাওয়ার বদৌলতে তিনটি গ্রামের বাসিন্দারা মুক্ত রয়েছেন করোনার ছোবল থেকে। এমন খবরই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দ বাজার। খবরে বলা হয়, করোনাবিধি মেনে চলা এবং একটি বিশেষ ফল খাওয়ার কারণে এখনো করোনাকে ঢুকতে দেয়নি তেলঙ্গানার ৩টি গ্রাম! গ্রামবাসীদের দাবি, বিশেষ এই ফলই তাদের করোনা থেকে বাঁচিয়ে চলেছে।

ভারতের তেলঙ্গানার নির্মল জেলার অন্তর্গত আদিবাসী অধ্যুষিত ৩টি গ্রাম। পেন্টামারি, ইপ্পাচার্মি এবং লক্ষ্মীনগর। গ্রামবাসীদের দাবি, এই ৩ গ্রামে এখনো পর্যন্ত একটিও করোনা সংক্রমণের রিপোর্ট নেই। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, 'আম্বালি' নামে একটি ফল তারা দিনে ৩ বার করে খান। অত্যন্ত পুষ্টিকর এই ফলই নাকি তাদের রক্ষা করে আসছে। আম্বালি একটি আঞ্চলিক ফল। অনেকটা তেঁতুলের মতো দেখতে ফলটি স্বাদেও টক।

গ্রামবাসীদের দাবি, দিনে ৩ বার করে এই ফল খাওয়ার পাশাপাশি করোনা বিধিগুলিও কড়া ভাবে অনুসরণ করেন তারা। কেউই গ্রামের বাইরে বার হন না। বাইরে থেকে গ্রামে কাউকে ঢুকতেও দেন না। সন্ধ্যা ৬টার পর বাড়ি থেকেও বার হন না, আর প্রয়োজনে বাইরে বার হলে হলুদ গোলা গরম জলে স্নান করে নিজেদের জীবাণুমুক্ত করে তবেই বাড়িতে প্রবেশ করেন। আর মুখে অবশ্যই বড় কাপড় জড়াতে ভোলেন না কেউ।

যদিও গ্রামবাসীদের করোনা না ছুঁতে পারার এই দাবিকে স্বীকৃতি দেয়নি প্রশাসন। একটি সংক্রমণ ধরা পড়েনি সারা দেশে এমন কোনো গ্রাম নেই বলেই জানানো হয়েছে সরকারি রিপোর্টে। তবে এই ৩টি গ্রাম তুলনায় করোনার প্রভাবমুক্ত বলে জানানো হয়েছে। করোনা সে ভাবে এই গ্রামগুলিতে থাবা না বসানোর অন্যতম কারণ হল বাসিন্দাদের জীবনপ্রণালী। গ্রামেই চাষ হওয়া পুষ্টিকর সবজি, ফল খেয়ে জীবন কাটান তাঁরা। যার জন্য তাঁদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি।