শঙ্কা নিয়ে শুরু হচ্ছে প্রস্তুতি|292369|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ মে, ২০২১ ০০:০০
শঙ্কা নিয়ে শুরু হচ্ছে প্রস্তুতি
ক্রীড়া প্রতিবেদক

শঙ্কা নিয়ে শুরু হচ্ছে প্রস্তুতি

করোনার কারণে হঠাৎ করেই স্থগিত হয়ে গেছে এএফসি কাপের খেলা। মালদ্বীপে গ্রুপপর্ব ১৪ মে শুরুর কথা ছিল। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সে দেশের সরকারের অনুরোধে খেলা স্থগিত করেছে এএফসি। তাতে মন ভেঙেছে বসুন্ধরা কিংসের খেলোয়াড়দের। এএফসি’র এমন সিদ্ধান্তে শঙ্কায় পড়ে গেছে জুনে কাতারে হতে যাওয়া বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। এই শঙ্কা নিয়ে কাল থেকে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল শুরু করেছে বাছাইপর্বের প্রস্তুতিপর্ব। এখনই মাঠের অনুশীলন অবশ্য শুরু হচ্ছে না। ধাপে ধাপে শুরু হয়েছে ক্যাম্পে যোগদান। গতকাল প্রথম দিনে যোগ দিয়েছেন তিন ক্লাবের ছয় ফুটবলার। আর কাল রাতেই ইংল্যান্ড থেকে ঢাকায় আসার কথা ছিল জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে’র। তার সঙ্গী হয়ে আসার কথা ছিল সহকারী কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিসের। কিন্তু বিমান ধরার জন্য বাধ্যতামূলক কভিড-১৯ পরীক্ষার ফল নেগেটিভ না আসায় তাকে ইংল্যান্ডেই থাকতে হচ্ছে। 

গতকাল জাতীয় দলের ম্যানেজার ইকবাল হোসেনের কাছে রিপোর্ট করেছেন আবাহনীর তিন ফুটবলার সোহেল রানা, সাদউদ্দিন ও শহীদুল আলম সোহেল, মোহামেডানের হাবিবুর রহমান সোহাগ ও আতিকুজ্জামান এবং পুলিশ এফসি’র মোহাম্মদ শরীফ। ডাক পাওয়া ৩৩ ফুটবলারের মধ্যে ১০ জনই বসুন্ধরা কিংসের। এএফসি কাপ স্থগিত হওয়ায় লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা কিংস ঈদের আগে আরেকটি ম্যাচ খেলতে চাইছে। যা নিয়ে কাল পর্যন্ত বাফুফে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। ইকবাল হোসেন জানান, কিংসের একটি ম্যাচ ১২ মে হওয়ার একটা সম্ভাবনা আছে। সেক্ষেত্রে সেই ম্যাচ খেলেই ডাক পাওয়া ১০ ফুটবলার যোগ দেবেন ক্যাম্পে। বাকিরা আজ ১৭তম রাউন্ডের খেলা শেষে যোগ দেবেন ক্যাম্পে। আপাতত তারা হোটেলেই জিম ও সুইমিং সেশন করবেন। ৩৩ ফুটবলার সবাই ক্যাম্পে আসার পর কভিড-১৯ পরীক্ষা হবে। সেই পরীক্ষার নেগেটিভদের নিয়ে ঈদের ছুটিতেই শুরু হবে মাঠের প্রস্তুতি।

কাল ঢাকায় নেমেই জেমি ডে’র চলে যাওয়ার কথা রয়েছে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে। তবে সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের বিশেষ বিবেচনায় জেমিকে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন করতে হচ্ছে না। পাঁচদিন হোম কোয়ারেন্টাইন করার পরই কোচ যোগ দিতে পারবেন শিষ্যদের সঙ্গে।

৩১ মে থেকে ১৫ জুন কাতারের সেন্ট্রালাইজড ভেন্যুতে ‘ই’ গ্রুপের খেলা নিয়ে সংশয় আছে। কাতার সরকার ভারতীয় নাগরিকদের প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ করেছে। বিশেষ বিবেচনায় ভারতীয় দলকে সেখানে যাওয়ার অনুমতি দিলেও সেখানে যাওয়ার পর ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন করতে হবে। ভারত অবশ্য ১৪দিন কোয়ারেন্টাইন করে খেলতে চায় না। তারা সম্প্রতি এএফসিকে চিঠি দিয়ে নিজেদের অবস্থান জানিয়েছে। কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম শিথিল না হলে খেলা পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে তারা। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনও কাতারে কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছে। সব মিলিয়ে বাছাইপর্বের খেলা নির্ধারিত সময়ে না হওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল।

ফুটবলাররা অবশ্য এসব নিয়ে ভাবছেন না। বরং পরিবারের ঈদ আনন্দ উদযাপন না করে যোগ দিচ্ছেন ক্যাম্পে। সম্প্রতি কন্যাসন্তানের বাবা হয়েছেন মোহামেডানের মিডফিল্ডার হাবিবুর রহমান সোহাগ। সন্তানের সঙ্গে প্রথম ঈদ করতে না পারার কষ্ট বুকে চেপে নিজের সেরাটা ঢেলে দিতে চান সোহাগ, ‘ক’দিন আগেই মেয়ে হয়েছে। তার পাশে থাকতে পারছি না। ঈদও পরিবারের সঙ্গে করতে পারব না। এসব মেনেই এখানে এসেছি একটা জেদ নিয়েই, যাতে দেশের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনতে পারি। আমি যেহেতু নতুন, চেষ্টা করব কোচের নির্দেশনা মেনে নিজের জায়গাটা ধরে রাখতে।’

আবাহনীর মিডফিল্ডার সোহেল রানা বিয়ে করেছেন কিছুদিন আগে। এবারই প্রথম নববিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে ঈদ করার সুযোগ ছিল। কিন্তু জাতীয় দলের দায়িত্বটাই তার কাছে আগে, ‘পেশাদার ফুটবলার হিসেবে সবার আগে আমার কাছে দেশ। দেশের প্রয়োজনে এতটুকু স্যাক্রিফাইস করতেই হবে আমাদের। এ ক’দিন আমরা ঘরোয়া ফুটবল নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। এখন আমাদের ভাবতে হবে বিশ্বকাপ বাছাই নিয়ে। তিনটি ম্যাচ থেকে আমরা চেষ্টা করব যতবেশি পয়েন্ট পেতে।’