তবুও এল খুশির ঈদ|292721|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৪ মে, ২০২১ ০০:১৫
তবুও এল খুশির ঈদ
অনলাইন ডেস্ক

তবুও এল খুশির ঈদ

ফাইল ছবি: দেশ রূপান্তর

শুক্রবার পবিত্র ঈদুল ফিতর। ৩০ দিন সিয়াম সাধনার পর মুসলিম সম্প্রদায় ঈদ উদ্‌যাপন করবে। সবাইকে ঈদ মোবারক।

এবারও ঈদ উদ্‌যাপিত হচ্ছে মহামারি করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতিতে। তারপরও ঈদের খুশিকে সম্বল করতে চাইছে মানুষ।

এবারের ঈদের মূল শুভেচ্ছা বিনিময়ের উপায় সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম। সেখানেই চলছে পারস্পরিক শুভেচ্ছা বিনিময়।

অনিশ্চিত ভবিষ্যতের আশঙ্কাকে ভুলে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ পাচ্ছে সবার মাঝে। অনেকেই যেতে পারেননি গ্রামের বাড়ি, প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ করতে। সাধারণ ছুটি, লকডাউন, গণপরিবহনসহ ব্যবসা-বাণিজ্যে ভাটা পড়ায় ঈদের চেনারূপ নেই। আনন্দ-উচ্ছ্বাস থাকার কথা তা এবার ম্লান করে দিয়েছে মহামারি করোনাভাইরাস।

করোনা মোকাবিলায় ও সংক্রমণ বিস্তার রোধে সরকারের নির্দেশনায় এবার খোলা মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। ঈদ জামাত হবে মসজিদের ভেতরে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে।

এবার হাইকোর্ট সংলগ্ন জাতীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত হচ্ছে না। হচ্ছে না শত বছরের ঐতিহ্য ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ময়দানের ঈদ জামাতও।

বায়তুল মোকাররমে প্রথম জামাত হবে সকাল ৭টায়। ইমামতি করবেন মুফতি মিজানুর রহমান, দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়, ইমাম মুফতি মুহিববুল্লাহিল বাকী নদভী, তৃতীয় জামাত হবে সকাল ৯টায়, এ জামাতের ইমামতি করবেন মাওলানা এহসানুল হক, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায়, এ জামাতে ইমামতি করবেন মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম এবং পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত সকাল পৌনে ১১টায়, এই জামাতের ইমামতি করবেন মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান।

৫টি জামাতে কোনো ইমাম অনুপস্থিত থাকলে বিকল্প ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে ২৬ এপ্রিল জারীকৃত বিজ্ঞপ্তি অনুসরণ করে যথাযথ সুরক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে মসজিদের ইমাম-খতিব, মসজিদ ব্যবস্থাপনা কমিটি, ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ও সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।