‘মনের অজান্তে’ ৬০ ফুট দীর্ঘ নারিকেল গাছের মাথায় উঠলেন গৃহবধূ!|300568|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ জুন, ২০২১ ২০:২৯
‘মনের অজান্তে’ ৬০ ফুট দীর্ঘ নারিকেল গাছের মাথায় উঠলেন গৃহবধূ!
এম রবিউল ইসলাম রবি, ঝিনাইদহ

‘মনের অজান্তে’ ৬০ ফুট দীর্ঘ নারিকেল গাছের মাথায় উঠলেন গৃহবধূ!

ঝিনাইদহে এক গৃহবধূ (২২) ‘মনের অজান্তে’ নারিকেল গাছের মাথায় উঠেছেন বলে জানিয়েছেন।  ৪০ মিনিট ধরে চেষ্টায় পর তাকে উদ্ধার করে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিস।

বৃহস্পতিবার রাতে মহেশপুর উপজেলার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই গৃহবধূর স্বামী জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চা পান করতে বাড়ির বাইরে যান তিনি। পরে রাত ৮টার দিকে বাড়িতে থাকা স্ত্রীকে ফোন করেন। কিন্তু তাকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর তিনি বাড়িতে এসে আশপাশে স্ত্রীকে খুঁজতে থাকেন। বাড়ি ফিরে তিনি শুনতে পান তার স্ত্রী মেয়ে তাদের একমাত্র মেয়ের নাম ধরে ডাকছেন। পরিবারের লোকজন এ ডাক শোনার পর বাড়ির পাশে থাকা নারিকেল গাছে টর্চলাইট মেরে দেখতে পান গাছের মাথায় উঠে বসে আছেন তার স্ত্রী।

তিনি জানান, স্থানীয়রা নামানোর চেষ্টা করেও তাকে নামাতে পারেনি। পরে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে এসে গাছ থেকে তাকে নামিয়ে আনে।

মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার রমেশ কুমার সাহা জানান, খবর পেয়ে তারা ওই গ্রামে যান। পরে ৪০ মিনিট চেষ্টায় ৬০ ফুট উচ্চতার নারিকেল গাছ থেকে দড়ির মাধ্যমে ওই গৃহবধূকে নামানো হয়। তখন তার জ্ঞান ছিল না। উদ্ধার শেষে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ওই নারী জানান, মনের অজান্তে তিনি নারিকেল গাছে উঠেছেন কীভাবে জানেন না।

ঝিনাইদহ জেলা বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ডা. রাশেদ আল মামুন বলেন, ‘মানসিক বৈকল্যের কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। জিন বা পরি না। এসব রোগীদের উন্নত চিকিৎসার জন্য মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ কোনো চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত’।